Calcutta High Court: গোখলের বক্তব্যের বিপরীত অবস্থান আজকের বাংলার, বিচারপতির কথায় হাইকোর্টে মাথা হেঁট রাজ্যের

Advertisement

ফের কলকাতা হাইকোর্টের কড়া সমালোচনার মুখে পড়ল রাজ্য সরকার। এবার একেবারে গোখলের সেই পরিচিত বক্তব্যকে তুলে ধরে রাজ্যকে তুলোধোনা আদালতের। অ্যাসিড হানায় জখম এক নির্যাতিতাকে সাত লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার সময়তেই রাজ্যের সমালোচনায় মুখর হল আদালত।

হাইকোর্টের বিচারপতি শেখর বলি সরাফ এনিয়ে পর্যবেক্ষণের জেরে বিশেষ মন্তব্য করেন। তিনি শ্রী গোপাল কৃষ্ণ খোখলের প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। তিনি বলেন, গোপাল কৃষ্ণ গোখলে একসময় বলেছিলেন, বাংলা আজকে যা ভাবে ভারতবর্ষ আগামীকাল তা ভাববে। ১৯ শতকের গোড়ার দিকে এই বক্তব্য খুবই প্রাসঙ্গিক ছিল। কিন্তু আজকের বাংলার এই বক্তব্যের বিপরীতে অবস্থান করছে। উন্নয়ন ও সুশাসনের পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে মান্যতা দেওয়ার ক্ষেত্রেও রাজ্য পিছিয়ে পড়ছে।

অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য বিচারপতির। অনেকের মতে, বাংলা আজ যা ভাবে গোটা ভারত কাল তা ভাবে। এটাই ছিল এককালের সোনার বাংলা। বাংলার মেধা বরাবরই এগিয়ে। নেতাজির বাংলা, রবীন্দ্রনাথের বাংলা, বিবেকানন্দর বাংলা, বিদ্যাসাগরের বাংলা। দেশকে পরাধীনতা থেকে শৃঙ্খলমুক্ত করতে বার বার জেগে উঠেছে বাংলা। আর সেই বাংলা আজ কার্যত দুর্বিপাকে। গোটা শিক্ষা দফতর কার্যত জেলে। চাকরিপ্রার্থীরা বছরের পর বছর ধরে রাস্তায় বসে রয়েছেন। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে ভুরি ভুরি অভিযোগ। বার বার আদালতে মুখ পুড়ছে রাজ্যের।

এদিকে বাংলার ভোট মানেই হিংসা। এবারের পঞ্চায়েত ভোটেও ভয়াবহ হিংসা দেখেছে বাংলা। রক্তস্নাত হয়েছে বাংলা। এই বাংলাতেই বগটুইয়ের মতো ঘটনা হয়। এই বাংলাতেই প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর বান্ধবীর ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয় কোটি কোটি টাকা। আদালতেও এবার মাথা হেঁট হল রাজ্য সরকারের।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।