Ayushmann Khurrana: ‘প্রথমবার মনে হচ্ছে বাবা অনেক দূরে’, আয়ুষ্মানের লেখা পড়ে বলিউডের চোখে জল

Advertisement

গত সপ্তাহে প্রয়াত হন আয়ুষ্মান খুরানার বাবা তথা জ্যোতিষী পি খুরানা। বাবার মৃত্যুর পর এই প্রথমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু লিখলেন আয়ুষ্মান। তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে বাবার স্মৃতিতে একটা লম্বা পোস্ট লেখেন ড্রিম গার্ল খ্যাত অভিনেতা।

গত ১৯ মে প্রয়াত হয়েছেন আয়ুষ্মান খুরানার বাবা। তার পর এই প্রথম অভিনেতা সোশ্যাল মিডিয়ায় মনের কথা লিখলেন। বাবার স্মরণ সভার একাধিক ছবি এদিন তিনি পোস্ট করেছিলেন। অভিনেতার শেয়ার করা ছবিতে দেখা যায় তাঁর মা কাঁদছেন।

আয়ুষ্মান এদিন তাঁর মা এবং ভাই অপারশক্তি খুরানার সঙ্গে একাধিক ছবি শেয়ার করেন। এই পোস্টে তিনি লেখেন, ‘মায়ের খেয়াল রাখতে হবে, আর সবসময় একসঙ্গে থাকতে হবে। বাবার মতো হতে গেলে বাবার থেকে অনেক দূর যেতে হয়। এই প্রথমবার মনে হচ্ছে বাবা একই সঙ্গে আমাদের থেকে অনেকটা দূর আবার কাছেও আছে।’

তিনি তাঁর পোস্টে আরও লেখেন, ‘আমাদের বড় করার জন্য, ভালোবাসার জন্য, তোমার এত ভালো সেন্স অব হিউমার দেওয়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ। অনেক সুখস্মৃতি রয়ে গেল।’

আয়ুষ্মান এই পোস্ট করার পরই অর্জুন কাপুর তাতে কমেন্ট করেন। তিনি লেখেন, ‘উনি ভীষণ ভালো মানুষ ছিলেন। ওঁর সঙ্গে কথা বলতে সময় কাটাতে খুব ভালো লাগত। ঈশ্বর তোমাদের শক্তি দিন।’ ভূমি পেডনেকর লেখেন, ‘অনেক ভালোবাসা নিও।’ সুনীল গ্রোভার লেখেন, ‘ওঁকে মিস করব।’

এশা গুপ্তা, মৌনি রায়, দিয়া মির্জা, হুমা কুরেশি, নেহা ধুপিয়া, মণীশ পাল, মুকেশ ছাবরা প্রমুখ তাঁদের সমবেদনা জানিয়েছেন।

তারা শর্মা এদিন তাঁর পোস্টে লেখেন, ‘গভীর সমবেদনা জানাই। আমার বাবা যখন চলে যাচ্ছিলেন তখন উনি যাওয়ার আগে ঠিক তোমার লেখা প্রথম কথাগুলোই বলেছিলেন। মায়ের সঙ্গে থেকো। তোমার বাবা তোমার সঙ্গেই আছেন।’

আয়ুষ্মান একা নন, তাঁর স্ত্রী তাহিরা কাশ্যপ একটি পোস্ট করেন শ্বশুরের স্মৃতিতে। তিনি লেখেন, ‘বাবা, এই সম্পর্কটা আমি যখন স্কুলে পড়ি তখন থেকে শুরু হয়েছিল। আমি আমার সব প্রথম মনে রাখি। আমি যেদিন প্রথম তোমার বাড়িতে এসেছিলাম সেদিন এসেই একটা পুরো ফিল্মি সিন দেখেছিলাম। আমি কলেজে থাকাকালীন আমার পাওয়া প্রথম স্যালারি দিয়ে তোমাকে আর মাকে সারপ্রাইজ দেওয়ার জন্য একটা পোট্রেট বানিয়েছিলাম। প্রথম প্রথম তোমায় বাবা ডাকতে অসুবিধা হতো, কিন্তু যবে থেকে ডাকটা শুরু করলাম আর ছাড়িনি।’

তিনি আরও লেখেন, ‘আমি আমার সব প্রথম মনে রাখি। এই প্রথম কোনও শেষ মনে রাখলাম। দুদিন আগে তোমার জিনিসগুলো ঘাঁটছিলাম দেখলাম তুমি এমন একটা ম্যাগাজিন রেখে দিয়েছ যেখানে আমি কভার ফটোতে আছি। এটা অনেক পুরনো তাও তুমি ফেলে দাওনি। আমি কখনও তোমার হাসি ভুলব না। মিস করব তোমায় বাবা।’

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।