New Parliament: নয়া সংসদ ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠান বয়কট বিরোধীদের, পালটা কড়া বিবৃতি দিল NDA

Advertisement

অনিরুদ্ধ ধর

২৮ মে নতুন সংসদ ভবনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেই অনুষ্ঠান বয়কট করছেন ১৯টি বিরোধী দল। তাতে নেতৃত্ব দিচ্ছে কংগ্রেস। এবার তা নিয়ে সুর চড়াল এনডিএ। তাদের দাবি, এট শুধু অশ্রদ্ধার বিষয় সেটাই নয়, এটা গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ, সাংবিধানিক ব্যবস্থার সঙ্গে সংঘাত।

এনডিএর ১৪টি দল বিবৃতি জারি করে বিরোধীদের বলেছেন, আপনারা বিষয়টি বিবেচনা করুন। গণতন্ত্রকে যারা অপমান করেন তাদের এই ভূমিকা কিন্তু দেশবাসী কোনও দিন ভোলে না।

এনডিএ জানিয়েছে, এটা বৌদ্ধিকক্ষেত্রে দেউলিয়াপনা। গণতন্ত্রের উপর আঘাত। তবে এটাই তাদের প্রথম নজির নয়। এর আগেও গত ৯ বছর ধরে বিরোধীরা সংসদের কাজ কর্মে বাধা দিয়েছেন, সাংসদ হিসাবে যে কর্তব্য সেটাও পালন করেননি। আর এবারের বয়কট হল সেই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে অশ্রদ্ধা করার যে টুপি, সেটাতে নয়া পালক।

এদিকে এর আগে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন বয়কটের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তবে কংগ্রেস, আপ, টিএমসি, আরজেডি, ডিএমকে, শিবসেনার উদ্ধব ঠাকরে গোষ্ঠী এই বয়কট করছে। এদিকে এনডিএ কটাক্ষ করে জানিয়েছে, এর আগে বিরোধীরা স্পেশাল জিএসটি সেশন বয়কট করেছিলেন। সেবার তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্য়ায় সভাপতিত্ব করেছিলেন। যখন তিনি ভারত রত্ন পেয়েছিলেন তখনও তাতে আসতে চাননি। আবার রামনাথ কোবিন্দ যখন রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন তখনও দেরি করে সৌজন্য দেখিয়েছিলেন বিরোধীরা। এমনকী বর্তমান রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর প্রতিও তাঁরা অশ্রদ্ধা দেখিয়েছিলেন বলে দাবি এনডিএর।

সব মিলিয়ে নয়া সংসদ ভবন উদ্বোধনের আগে থেকেই শাসক বিরোধী সংঘাত একেবারে চরমে। তবে শেষ পর্যন্ত এর প্রভাব কতটা সুদূর প্রসারী হয় সেটাই দেখার।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।