Jump into river: মাঝ গঙ্গায় হাবুডুবু খাচ্ছিলেন মহিলা, ঝাঁপ দিয়ে প্রাণ বাঁচালেন লঞ্চ কর্মীরা

Advertisement

লঞ্চের কর্মীদের তৎপরতায় প্রাণ বাঁচল এক মহিলার। মাঝ গঙ্গায় হাবুডুবু খাচ্ছিলেন ওই মহিলা। তা দেখে নদীতে ঝাঁপ মারেন হাওড়াগামী লঞ্চের কর্মীরা। তাঁরা ওই মহিলাকে নদী থেকে উদ্ধার করেন। বেশ কিছুক্ষণ জলে হাবুডুবু খাওয়ার ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন ওই মহিলা। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর কলকাতা বাগবাজার ঘাটের কাছে। জানা গিয়েছে, ওই মহিলার নাম কমলা নাথ। তাঁর ঠিকানা জানা যায়নি। আত্মহত্যা করার জন্য গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়েছিলেন তিনি। তখন বিষয়টি লঞ্চের কর্মীদের চোখে পড়ে। তাঁরা মহিলাকে জল থেকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা করেন। বর্তমানে মহিলা সুস্থ রয়েছেন। তাঁর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটা নাগাদ। হাওড়া ফেরি সার্ভিসের কর্মীরা মহিলাকে ভাসতে দেখেন। সেই সময় জোয়ার থাকায় ভাসতে ভাসতে ওই মহিলা বাগবাজার লঞ্চ ঘাটের কাছে চলে আসেন। ঠিক সেই সময় একটি লঞ্চ বাগবাজার থেকে হাওড়ার দিকে যাচ্ছিল। তখন লঞ্চের কর্মীরা ঝাঁপ দিয়ে মহিলাকে উদ্ধার করে ফেরিঘাটে নিয়ে যান। এই ঘটনার পর লঞ্চের কর্মীরা হাওড়ার গোলাবাড়ি থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ।

উদ্ধারের পর ওই মহিলাকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য হাওড়া জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। তবে মহিলার ঠিকানা এখনও জানা যায়নি। পুলিশ তা জানার চেষ্টা করছে। একই সঙ্গে ওই মহিলা কেন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন সে বিষয়টিও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। বর্তমানে মহিলার অবস্থা স্থিতিশীল।

উল্লেখ্য, গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা প্রায়ই ঘটে। যার মধ্যে অনেক ঝাঁপ দেওয়ার ঘটনা ঘটে বিদ্যাসাগর সেতু থেকে। পুলিশ সূত্রে খবর, প্রতি বছরই বিদ্যাসাগর সেতু থেকে সাত-আট জন গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হন। গত কয়েকমাসের মধ্যে দুটো এমন ঘটনা ঘটেছে বলে খবর। আবার অনেকে আত্মহত্যা করতে এসে পুলিশের হাতে ধরাও পড়েছেন। এমন ধরনের ঘটনা প্রায়ই ঘটে চলেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে এ দিনের ঘটনায় ওই মহিলা হাওড়া ফেরি ঘাটের ১ নম্বর জেটি থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন।

যদিও এ দিনের ঘটনায় ওই মহিলা হাওড়া ফেরি ঘাটের ১ নম্বর জেটি থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করেছিলেন।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।