Mamata Banerjee: অখিল গিরির পর অজিত মাইতি, এ বার পিংলার বিধায়কের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন মমতা

Advertisement

কুড়মিদের আন্দোলন নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন পিংলার বিধায়ক অজিত মাইতি। তাঁর সেই মন্তব্যেকে ঘিরে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। এবার সেই মন্তব্যের জন্য অজিত মাইতির হয়ে ক্ষমা চাইলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পিংলার বিধায়ক দলনেত্রীর কাছে জানিয়েছেন, তাঁর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বলেন,’আমি অজিত মাইতিকে ফোন করেছিলাম। আমারও খুব খারাপ লেগেছে। ও আমাকে বলল, আমি আসলে বলতে চেয়েছি তা ওরা ঘুরিয়ে অন্যভাবে বলেছে।’ এর পর হাত জোড় করে মমতা বলেন, ‘অজিত মাইতি যদি কিছু বলে থাকে বা তার বক্তব্যের যদি ভুল ব্যাখ্যা করে থাকে বিজেপি, আমি তাঁদের বলব ওই বক্তব্য আমাদের বক্তব্য নয়। আমরা কুড়মিদের যথাযোগ্য সম্মান করি। আমরাও আদিবাসীদের যথাযোগ্য সম্মান করি। আমরা সব ধর্ম, সব সম্প্রদায়ের মানুষকে সম্মান করি। যদি কেউ তাঁর বক্তব্যে ঘুরিয়ে বলার জন্য বা মুখ ফসকে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য যদি মাহাতোরা দুঃখ পেয়ে থাকেন, আমি নিজে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। এটা নিয়ে রাজনীতির জায়গা নেই।’

প্রসঙ্গত, ঘাটালের একটি অনুষ্ঠানে বিধায়ক তথা তৃণমূল মেদিনীপুর জেলা কো-অর্ডিনেটর অজিত মাইতি কুড়মি আন্দোলনের নেতাদের সঙ্গে খালিস্তানি নেতাদের তুলনা করেন। এর পর বিক্ষোভে ফেটে পড়ে কুড়মি সম্প্রদায়ের মানুষরা। তারা প্রতিবাদে শালবনিতে অজিত মাইতি ও শ্রীকান্ত মাহাতোর কুশপুতুল দাহ করেন। পিংলার বিধায়কের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় পোস্টারও দেওয়া হয়। সোমবারও রাজ্যে বিভিন্ন জায়াগায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছে কুড়মিরা।  এই পরিস্থিতিতে তাদের ক্ষোভ সামাল দিতে পিংলার বিধায়কের হয়ে নিজেই ক্ষমা চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী।

(পড়তে পারেন। পশ্চিমবঙ্গে নিষিদ্ধ ‘দ্য কেরালা স্টোরি’, ‘কোনও হলে চালানো যাবে না’,নির্দেশ মমতার)

এর আগে পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরির রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতেও ক্ষমা চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। বিধায়কের মন্তব্যে নিয়ে প্রতিবাদের আঁচ দিল্লি পর্যন্ত পৌঁছয়। এবার মেদিনীপুরের আর এক বিধায়কের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন তৃণমূল নেত্রী।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।