নওশাদকে ধাক্কা মারায় অভিযুক্ত আবদুল সালাম যেন আরেকটা শিবঠাকুর মণ্ডল

Advertisement

চিহ্নিত হলেন DA আন্দোলনের মঞ্চে ISF বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকীকে ধাক্কা মারার ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক। অভিযুক্ত আবদুল সালাম ওরফে তোতা হাওড়ার বাঁকড়া ২ নম্বর পঞ্চায়েতের তৃণমূলের উপপ্রধান। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ওই যুবক বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন তিনি। তবে বর্তমানে তাঁর রাজনৈতিক অবস্থান অজ্ঞাত বলে জানিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা।

জানা গিয়েছে, বাঁকড়া পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা তোতা গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাঁকড়া ২ নম্বর পঞ্চায়েতের তৃণমূলের সদস্য নির্বাচিত হন। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজীবের সঙ্গে দল ছাড়েন তিনি। ভোটের পরে রাজীব তৃণমূলে ফিরলেও তাঁকে ত্রিপুরায় চালান করে দেন অভিষেক। এরপর থেকে না ঘরকা, না ঘাটকা অবস্থা তোতার।

বাঁকড়া ২ নম্বর পঞ্চায়েতের তৃণমূলি উপ প্রধান শেখ মেহের আলি বলেন, ‘তোতার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। বিধানসভা নির্বাচনের আগে ও বিজেপিতে যোগদান করেছিল। তার পর ওকে দল বহিষ্কার করেনি ঠিকই, তবে গত ২ বছরে ওকে তল্লাটে দেখা যায়নি। ওর মাথায় একটু গোলমাল আছে।’ এব্যাপারে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

শনিবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ ডিএ আন্দোলনের মঞ্চে বক্তব্য রাখেন নওশাদ সিদ্দিকী। বক্তব্য শেষ হতেই তাঁর দিকে এগিয়ে যান এক যুবক। নৌসাদকে প্রশ্ন করেন, সংখ্যালঘুদের জন্য আপনি কী করেছেন। নওশাদ মাইক্রোফোন হাতে তার উত্তর দেওয়া শুরু করতে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করে বিধায়ককে নিজের জামা তুলে পেট দেখাতে থাকেন যুবক। কয়েক মুহূর্ত পর নওশাদকে ধাক্কা মারেন তিনি।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।