ব্লিচিং – ফিনাইল দিয়ে সব দুর্নীতি পরিষ্কার করে দেব, সরস্বতীকে শপথ শুভেন্দুর

Advertisement

ব্লিচিং – ফিনাইল দিয়ে পরিষ্কার করে দেব। সরস্বতী পুজোর দিন শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে রাজ্য সরকারকে এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার নন্দীগ্রামে সরস্বতী পুজোয় অংশগ্রহণ করে একথা বলেন শুভেন্দুবাবু।

এদিন শুভেন্দুবাবুকে বলতে শোনা যায়, ‘পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষা ও শিক্ষক শব্দের সঙ্গে যে ভাবে অমর্যাদা হয়েছে। শিক্ষক শব্দটার সঙ্গে একটা শ্রদ্ধামিশ্রিত ভক্তি থাকে শিক্ষকদের দেখলে আমরা রাস্তা থেকে সরে যাই। শিক্ষকদের দেখলে আমরা পায়ে হাত দিই। কিন্তু আজকে কোনটা আসল শিক্ষক আর কোনটা ভুয়া শিক্ষক সেটা বাছতে হচ্ছে। ক্লাস ফাইভ পাশ করে স্কুলে অংকের শিক্ষক হয়েছেন। এ লজ্জা রাখার জায়গা নেই। গোটা শিক্ষা দফতরটা জেলের ভিতরে। সাদা খাতা জমা দিয়ে ৭০ হাজার চাকরি পেল। আর মেধা যুক্ত কর্মপ্রার্থী, শিক্ষিতরা বঞ্চিত হল’।

সরস্বতীকে শুভেন্দুবাবুর আর্জি, ‘মা তুমি ছেড়ে যাবে না। এই অকালকুষ্মাণ্ডদের দেখে এই বাংলার ছাত্রছাত্রী, অভিভাবকদের ছেড়ে যেও না। আমরা ঠিক করে দেব। আমরা ব্লিচিং – ফিনাইল দিয়ে পরিষ্কার করে দেব’।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে আদালতের নির্দেশে তদন্ত চালাচ্ছে সিবিআই ও ইডি। আর তদন্তে নেমে তারা একের পর এক তৃণমূলের নেতামন্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার হয়েছেন SSC-র একাধিক কর্তা, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বোর্ডের সভাপতিরা। সম্প্রতি এই দুর্নীতিতে গ্রেফতার হয়েছেন হুগলির যুব তৃণমূল নেতা কুন্তল ঘোষ। হুগলি জেলা পরিষদের তৃণমূলি কর্মাধ্যক্ষ শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেরা করছে তারা। এই দুর্নীতিতে উঠে এসেছে তৃণমূলের এক গায়িকা বিধায়কের স্বামীর নামও।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।