Saket Gokhle: আবার সাকেত গোখলে গ্রেফতার, এবার কেন তাঁকে হাতে নিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট?

Advertisement

আবার গ্রেফতার করা হল তৃণমূল কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র সাকেত গোখলেকে। ক্রাউড ফান্ডিংয়ের মাধ্যমে তোলা সম্পদের তছরুপের একটি মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (‌ইডি)‌। আগে তাঁকে গ্রেফতার করেছিল গুজরাট পুলিশ। তা নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। এবার চতুর্থবার গ্রেফতার হলেন সাকেত গোখলে। এবার ইডি গ্রেফতার করেছে। সাকেত গোখলে এখন গুজরাটের একটি জেলে রয়েছেন। সেই অবস্থাতেই তাঁকে ফের গ্রেফতার করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

ঠিক কী অভিযোগ তোলা হয়েছে?‌ অভিযোগ, একটি স্বেচ্ছাসেবি সংস্থার আড়ালে ক্রাউড ফান্ডিংয়ের নামে টাকা তছরুপ করেছেন সাকেত গোখলে। সেই টাকা তোলার পরে ব্যক্তিগত কাজে টাকা খরচ করেন সাকেত। ২০২২ সালের ৩০ ডিসেম্বর নয়াদিল্লি থেকে সাকেল গোখেলকে গ্রেফতার করে আহমেদাবাদ সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চ। সেটাও ক্রাউড ফান্ডিংয়ের তছরুপের কারণেই করা হয়েছিল।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ এদিকে মৌরবি সেতু বিপর্যয়ের পর নরেন্দ্র মোদীর সফরের খরচ সংক্রান্ত একটি টুইট করে সাইবার আইনে তৃণমূল কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র সাকেত গোখলেকে গ্রেফতার করে গুজরাট পুলিশ। সেই মামলায় জামিন পান সাকেত। তবে ফের তাঁকে গ্রেফতার করে বিজেপি শাসিত গুজরাটের পুলিশ। সাইবার আইনের পর জনপ্রতিনিধিত্ব আইনে গ্রেফতার করা হয়। চারদিনে দু’‌বার গ্রেফতারে দুবারই জামিন পান তিনি। এই ঘটনার পর গুজরাটের মৌরবিতে পৌঁছয় তৃণমূল কংগ্রেসের ৫ সদস্যের প্রতিনিধিদল। এমনকী তখন নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থও হয় তৃণমূল কংগ্রেস।

এবার ঠিক কী হল?‌ এবার হেফাজতে থাকা অবস্থায় সাকেত গোখলেকে গ্রেফতার করল ইডি। আসলে তাঁকে বাইরে বেরতে না দিতেই এই কাজ করা হয়েছে বলে মনে করছে তৃণমূল কংগ্রেস। আসলে সাকেত গোখলে বাইরে থাকলেই মোদীর মুখোশ খুলে দিচ্ছেন। তাই এভাবে তাঁকে জেলেই রাখতে চাইছেন কেন্দ্রীয় সরকার বলে তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ। আগে সাকেতের গ্রেফতারের পরে নয়াদিল্লির বঙ্গভবনের নিরাপত্তা দায়িত্ব নিয়েছে রাজ্য পুলিশ। বঙ্গভবনে হানা দেওয়া নিয়ে নয়াদিল্লি পুলিশের কাছে গুজরাট পুলিশ ও দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে রাজ্য সরকার।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।