Cattle Scam: সিউড়ির সেন্ট্রাল কো–অপারেটিভ ব্যাঙ্কে হানা সিবিআইয়ের, নজরে কি আরও অ্যাকাউন্ট?

Advertisement

আজ, বুধবার সিউড়ি কো–অপারেটিভ ব্যাঙ্কে আবার হানা দিল সিবিআই। সিউড়ির সমবায় ব্যাঙ্কে ১৭৭টি বেনামি অ্যাকাউন্টের হদিশ পেয়েছে সিবিআই। গরুপাচারের কালো টাকা সাদা করতে ব্যবহার করা হয়েছে এই অ্যাকাউন্টগুলিতে বলে মনে করছেন সিবিআই তদন্তকারীরা। গরুপাচারের কালো টাকা সাদা করতেই ডেমো অ্যাকাউন্ট খোলা হয় বলে দাবি সিবিআই অফিসারদের। এদিন হানা দেন মূলত বীরভূম জেলা কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাঙ্কে।

এদিন সিউড়ি ২ নম্বর ব্লকের অন্তর্গত হরিপুর আদিবাসী পাড়ায় বুধবার সকালে হানা দিলেন সিবিআই অফিসাররা। এই গ্রামে সিবিআই অফিসাররা আসেন মূলত একটি কারণেই—সকল ভুয়ো অ্যাকাউন্টের মধ্যে বেশকিছু অ্যাকাউন্ট রয়েছে যেগুলি এই এলাকার বাসিন্দাদের। তাঁদের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল এভাবে অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে তা সম্পর্কে তারা কিছু জানেন কিনা। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এদিন সিবিআই আধিকারিকরা ওই গ্রামে পৌঁছে ওই সকল ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেন। কেমন করে অ্যাকাউন্টে তাঁদের নামে টাকা জমা পড়ল তা নিয়ে তদন্ত চালানো হচ্ছে।

এদিকে সিউড়ির পুরন্দপুরের হরিপুর গ্রামেও যান সিবিআই আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই এই ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টের সঙ্গে অনুব্রত মণ্ডলের যোগ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ব্যাঙ্কের ম্যানেজারকে আগেই তলব করেছিল সিবিআই। তাঁর কাছ থেকে পাওয়া তথ্যই এদিন খতিয়ে দেখেন তাঁরা। এলাকার বেশ কয়েকজন মানুষের সঙ্গে কথা বলেন সিবিআই অফিসাররা।

অন্যদিকে পুরন্দপুরের হরিপুর গ্রামে গিয়ে বেশকিছু তথ্য সংগ্রহ করছে সিবিআই। বীরভূমের সিউড়িতে সেন্ট্রাল কো–অপারেটিভ ব্যাঙ্কের ১৭৭টির বেশি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট পেয়েছে সিবিআই। এই অ্যাকাউন্টের মধ্যে দিয়ে গরু পাচারের কালো টাকা সাদা করা হয়েছে বলে দাবি সিবিআই অফিসারদের। আর অনুব্রত এই কাজ করতে কোনও প্রভাব খাটিয়ে ছিলেন কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।