এখন বলছেন ক্ষোভ থাকতেই পারে, তবে অম্বিকেশবাবুকে আটকে রেখেছিলেন কেন? মমতাকে দিলীপ

Advertisement

দিদির দূত কর্মসূচিতে গিয়ে জেলায় জেলায় তৃণমূলের নেতা – মন্ত্রীদের ঘিরে চলছে বিক্ষোভ। কিন্তু সাধারণ মানুষের সেই ক্ষোভকে তিনি বিক্ষোভ বলে মানতে নারাজ বলে সোমবার নেতাজি জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সকালে মমতাকে পালটা প্রশ্ন ছুড়লেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘তাহলে একটা কার্টুন শেয়ার করার জন্য অম্বিকেশ মহাপাত্রকে জেলে আটকে রেখেছিলেন কেন?’

মঙ্গলবার ভোরে ইকো পার্কের সামনে দিলীপবাবু বলেন, ‘আঙুর ফল টক তো হবেই। ওনারা ভেবেছিলেন যেভাবে চোখ দেখিয়ে লোককে আটকে রেখেছিলেন সেরকমই চলবে। সেটা হচ্ছে না। উনি বলছেন, ক্ষোভ বিক্ষোভ থাকা উচিত। তাহলে আপনি অম্বিকেশ মহাপাত্রকে জেলে ঢুকিয়েছিলেন কেন একটা কার্টুনের জন্য? আমাদের হাজার হাজার ছেলে ফেসবুকে আপনার বিরুদ্ধে লাইক করেছে বলে কেস দিয়ে জেলে ঢুকিয়ে দিয়েছেন। পুলিশ তাদের বাড়ি পৌঁছে যাচ্ছে। এখন আটকাতে পারছেন না তাই বড় বড় কথা বলছেন। মানুষ সব হিসাব বুঝে নেবে’।

সোমবার নেতাজি জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘সবাই আমাকে ভালোবাসেন একথা মনে করার কোনও কারণ নেই। আমার কোনও সমালোচক বন্ধু থাকবে না এটা মনে করার কোনও কারণ নেই। আমি রাস্তা দিয়ে গেলে মানুষ তার দুঃখের কথা বলবে না আমি এরকম মানুষ নই। আমি চাই মানুষ বলুক। সেটাকে বিক্ষোভ বলবেন না। এটা সাধারণ মানুষের গ্রিভান্স। অনেক কিছু তো হয়। হয়তো আমার নলেজে ছিল না। সেই নলেজে আনার জন্য যদি এইটুকু মানুষ বলবার জায়গা না পায় তাহলে কী হবে?’

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।