আমরা সমস্ত সংখ্যালঘু মুসলিমকে জেহাদি বলি না… শুভেন্দু অধিকারী

Advertisement

সমস্ত মুসলিমকে জেহাদি মনে করে না বিজেপি। জাতীয়তাবাদী মুসলিমদের সঙ্গে তাদের কোনও বৈরিতা নেই। মঙ্গলবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারের নান্দাভাঙায় বিজেপির পঞ্চায়েত সম্মেলনের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে এমনই বললেন শুভেন্দু অধিকারী। সঙ্গে বললেন, সওকত মোল্লা, জাহাঙ্গির খানদের কোনও ধর্ম নেই। ওরা গুন্ডা।

এদিন শুভেন্দু বলেন, ‘দক্ষিণ ২৪ পরগনায় গণতন্ত্রের লেশমাত্র নেই। ২০২১ সালের নির্বাচনের পরে এখানে সব থেকে বেশি অত্যাচার হয়েছে। কারা অত্যাচার করেছে? আমরা সমস্ত সংখ্যালঘু মুসলিমকে জেহাদি বলি না। রাষ্ট্রবাদীদের সঙ্গে আমাদের কোনও বিরোধ নেই। আমাদের নেতা অটলবিহারী বাজপেয়ী APJ আবদুল কালামকে রাষ্ট্রপতি মনোনীত করেছিলেন। আমাদের রাজ্যেই মাসুম আখতারের মতো শিক্ষিত পদ্মশ্রী পাওয়া লোকেরা রাষ্ট্রবাদের পক্ষে কথা বলে। কিন্তু সওকত মোল্লা থেকে জাহাঙ্গির খানরা কোনও ধর্মের লোক নয়। এরা গুন্ডা, তোলাবাজ। আগে সিপিএম করত, পরে তোলামূলের জামা পরে ভাইপোর কালেক্টর হয়ে এই জেলাকে কার্যত জেহাদিদের জেলায় পরিণত করেছে। এর বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই’।

তৃণমূলের অত্যাচারের বদলা নিতে হবে জিগির তুলে তিনি বলেন, ‘১৮-র পঞ্চায়েতের পরের অত্যাচার, ২১-এর বিধানসভা ভোটের পরের অত্যাচার আপনারা কি ভুলে গেছেন? এর হিসাব আমরা চোকাবোই, সুদ – আসলের সঙ্গে দণ্ডসুদও আদায় করব’।

আপনারা অপেক্ষা করুন। এর থেকেও বড় গুন্ডা ছিল অনুব্রত মণ্ডল। তিনিও বীরভূমে মনোনয়ন করতে দেননি। সাংবাদিকরা যেত, খুব রসালো রসালো কথা বলতেন। বলছে, রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে, মনোনয়ন দিতে যাবে কেন? বলছে গুড় বাতাসা, চড়াম চড়াম ঢাক। আজকে অবস্থা দেখুন। কী ভাবে তিহাড়ে যাওয়া আটকানো যাবে সেজন্য এখন ছটফট করছে’।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।