Last six ODI games we have done most things right, says Rohit Sharma Rohit

Advertisement

জি ২৪ ঘন্টা ডিজিটাল ব্যুরো: প্রত্যাশামতোই নিউজিল্যান্ডকে (New Zealand) ৯০ রানে হারিয়ে একদিনের সিরিজ জিতল টিম ইন্ডিয়া (Team India)। একইসঙ্গে ৩-০ ব্যবধানে একদিনের সিরিজ জেতার পর আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ের (ICC ODI Ranking) শীর্ষে চলে গেল রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) দল। প্রথমে শুভমন গিল (Shubman Gill)-রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) জোড়া শতরানের পর, বল হাতে নজর কাড়লেন শার্দূল ঠাকুর (Shardul Thakur) এবং কুলদীপ যাদব (Kuldeep Yadav) । তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দিলেন হার্দিক পান্ডিয়া (Hardik Pandya) ও উমরান মালিক (Umran Malik)। চার বোলারের দাপটে রানে গুটিয়ে গেল টম ল্যাথামের (Tom Latham) দল। ডেভন কনওয়ে (Devon Conway) মারমুখী মেজাজে ১০০ বলে ১৩৮ রান করলেও লাভ হল না। বিপক্ষকে ২৯৫ রানে অল আউট করে সিরিজ জিতল ভারত। এরপর ম্যাচের শেষে রোহিত কী বললেন? বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য অংশ তুলে ধরা হল। 

র‍্যাঙ্কিং নয়, টার্গেট অস্ট্রেলিয়া: আমি আইসিসি র‍্যাঙ্কিং নিয়ে একেবারেই ভাবনাচিন্তা করছি না। কারণ এখন থেকেই আমার মাথায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ঢুকে গিয়েছে। কারণ সেখানে কঠিন লড়াই হবে। সেটা আমরা সবাই জানি। 

তিন বছর পরে শতরান: ৩০ তম শতরান আমার কাছে অনেক কিছু। যদিও আমি চাই যতটা সম্ভব বেশি সময় উইকেটে কাটাতে। যাতে দলকে বড় রানের পথে নিয়ে যেতে পারি। 

প্লেয়ার অফ দ্য সিরিজ শুভমন: শুভমনের ওয়ার্ক এথিক্স দারুণ লেগেছে। ফর্মে থাকলেও প্রতি ম্যাচে একই একাগ্রতা থেকে শুরু করেছে। এমন ফর্ম বজায় রাখলে শুভমন থামানো খুব কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। 

লাগাতার সিরিজ জয়: গত দুটি একদিনের সিরিজের ছ’টি ম্যাচে আমরা একাধিক ইতিবাচক কাজ করেছি। সেই কাজের সুফল দল পেয়েছে। ব্যাটিং থেকে বোলিং, সব বিভাগেই আমরা ধারাবাহিকতা দেখিয়েছি। সেই ধারাবাহিকতা ভবিষ্যতেও বজায় রাখতে চাই। 

আরও পড়ুন: Shubman Gill and Rohit Sharma, IND vs NZ: শুভমন-রোহিতের জোড়া শতরানের পর ‘লর্ড শার্দূল’-কুলদীপের দাপুটে বোলিং, কিউইদের চুনকাম করে শীর্ষে ভারত

আরও পড়ুন: Virat Kohli and Ishan Kishan: বিরাটকে ডেকে নিজেই রান আউট ঈশান কিশান! ভিডিয়ো ভাইরাল

কুলদীপের পাশে রোহিত:  শার্দূলের মতোই দারুণ পারফরম্যান্স করেছে কুলদীপ। ও প্রতি ম্যাচেই সাফল্য পেয়েছে। দলকে এনে দিয়েছে উইকেট। তাই ওকে ভবিষ্যতে আরও অনেক বেশি ম্যাচ খেলানোর কথা ভাবছি। কারণ রিস্ট স্পিনারদের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য বেশি সুযোগ দেওয়া খুব দরকার। 

চাহাল ও উমরানকে সুযোগ: মহম্মদ শামি ও মহম্মদ সিরাজকে এই ম্যাচেও খেলাতে পারতাম। তবে যজুবেন্দ্র চাহাল ও উমরান মালিককে দেখে নেওয়ার জন্যই ওদের সুযোগ দিলাম। আমি চাই ওরা দু’জন চাপের মুখে পারফর্ম করুক। কারণ হোলকার স্টেডিয়ামের মতো ছোট মাঠে কোনও রানই যথেষ্ট নয়। তবুও আমরা চাপের মুখে ভালো পারফর্ম করেছি। 

‘লর্ড শার্দূল’-এর কামব্যাক: শার্দূল গোটা সিরিজেই দারুণ বোলিং করেছে। বল হাতে নিলেই দলকে সাফল্য এনে দিয়েছে। সেইজন্যই তো ওকে সবাই ‘ম্যাজিশিয়ান’ বলে ডাকে। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)   

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।