Delhi Mayor Election: ফের ঝামেলায় জড়ালেন কাউন্সিলররা, আজও স্থগিত হয়ে গেল দিল্লির মেয়র নির্বাচন

Advertisement

দ্বিতীয়বারের জন্য দিল্লির মেয়র নির্বাচন স্থগিত হয়ে গেল। এর আগে গত ৬ জানুয়ারি দিল্লির নবনির্বাচিত মিউনিসিপ্যাল ​​কর্পোরেশনের কাউন্সিলরদের শপথগ্রহণের আগে ঝামেলা হওয়ায় স্থগিত হয়েছিল দিল্লির মেয়র নির্বাচন। আজও এমসিডি সদর দফতরের সিভিক সেন্টার সাক্ষী থাকল হট্টগোলের। উল্লেখ্য, গত মাসে পুর নির্বাচনে বিজেপিকে হারিয়েছিল আম আদমি পার্টি। তবে মেয়র পদের নির্বাচনে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নেয় বিজেপি। এই আবহে কাউন্সিলর কেনা-বেচার অভিযোগ ওঠে। তাছাড়া মনোনীত প্রার্থীদের ভোটাধিকার নিয়েও দুই পক্ষের বিরোধ জারি রয়েছে। মেয়র পদের জন্য আম আদমি পার্টির প্রার্থী শেলি ওবেরয়। কেজরিওয়ালের দলের ডেপুটি মেয়রের পদপ্রার্থী হলেন আলে মহম্মদ ইকবাল। এদিকে বিজেপির মেয়র পদের প্রার্থী রেখা গুপ্তা। গেরুয়া শিবিরের ডেপুটি মেয়রের পদপ্রার্থী হলেন কমল বগরি।

আজ কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শুরু হয়। কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণের পরই স্লোগান উঠতে শুরু করে। এরপর দুই পক্ষের ঝামেলার মধ্যে মুলতুবি হয়ে যায় অধিবেশন। আজ শপথ গ্রহণের পরই কক্ষের নেতা মুকেশ গোয়াল প্রিসাইডিং অফিসার সত্য শর্মার কাছে আবেদন করেন যাতে মনোনীত কাউন্সিলররা যাতে মেয়র নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করতে পারেন। এরপর কিছুক্ষণের বিরতি নিয়ে হয় অধিবেশনে। এরপরই ঝামেলা শুরু হয়। উল্লেখ্য, দিল্লি মেয়র নির্বাচনে ভোটাধিকার রয়েছে নির্বাচিত ২৫০ কাউন্সিলর, ১৪ জন বিধায়ক এবং ১০ জন সাংসদ। উল্লেখ্য, সত্য শর্মাকে অস্থায়ী স্পিকার হিসেবে নিয়োগ করেছেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর ভিকে সক্সেনা।

উল্লেখ্য, পুর নির্বাচনে আম আদমি পার্টিকে কড়া টক্কর দিলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে অনেকটা দূরেই থমকে গিয়েছিল বিজেপি। এই আবহে প্রাথমিক ভাবে মেয়র নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার কথা জানিয়েছিল বিজেপি। তবে পরবর্তীতে গেরুয়া শিবির জানায়, তারা মেয়র নির্বাচনে অংশ নেবে। প্রসঙ্গত, বিগত ১৫ বছর ধরে দিল্লি পুরনিগম দখলে রয়েছে বিজেপির। এতবছর অবশ্য দিল্লি পুরনিগম তিন ভাগে বিভক্ত ছিল। ২০১২ সালের পর এই প্রথম ফের অভিবক্ত দিল্লি পুরনিগমের ভোট হয়। আর এই প্রথম পুরনির্বাচনে বিজেপিকে পিছনে ফেলে দেয় আম আদমি পার্টি। ২৫০ ওয়ার্ডের দিল্লি পুরসভায় আম আদমি পার্টি জিতেছে ১৩৪টি ওয়ার্ড। বিজেপির ঝুলিতে গিয়েছে ১০৪টি ওয়ার্ড। এদিকে লেফটেন্যান্ট গভর্নর ১০ জনকে মনোনীত করেছেন। এদিকে ইলেক্টোরাল কলেজে আম আদমি পার্টির কাছে ১৫০ জনের সমর্থন রয়েছে। অপরদিকে বিজেপির সঙ্গে সমর্থন রয়েছে ১১৩ জনের।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।