এবার থেকে একাধিক সন্তান নিলে বেতনও বাড়বে একাধিকবার! স্পষ্ট ঘোষণা সরকারের… Special increment by Sikkim governmen to women employees giving birth to a second baby and two increments for a third child

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: একটির বেশি সন্তান নিলে পাওয়া যাবে বাড়তি বেতন। বাড়িতে সন্তান পালনের জন্য সহায়তাকারী কাউকে বহাল রাখলে তাঁর বেতনও দেবে সরকারই। জাপান-নিউ জিল্যান্ড নয়, রাজ্যবাসীকে এই ‘অফার’ দিয়েছে সিকিম। সিকিম সরকার খতিয়ে দেখেছে, সিকিমের ইনডিজেনাস জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ক্রমশ কমছে। নিজস্ব জনজাতির এই সংকটের ফলে বড় মাপের সমস্যা তৈরি হতে পারে আগামী দিনে। তাই সরকার এই অফার দিচ্ছে। এর আগেও সিকিম সরকার এ সংক্রান্ত প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। গত নভেম্বরে সিকিম সরকারের পক্ষ থেকে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মহিলাদের জন্য বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ ও সুবিধা ইত্যাদি ঘোষণা করা হয়েছিল। 

আরও পড়ুন: চিনসীমান্তে নজরদারি জরুরি, এবার নতুন রাস্তা ধরে নাথু লা পৌঁছবে সেনাবাহিনী…

সিকিম সরকার সে দেশের মহিলা সরকারি কর্মচারীদের একাধিক সন্তান নিতে উৎসাহিত করছে। সিকিম সরকার জানিয়েছে, সরকারের তরফে প্রস্তাব করা হয়েছে, একটির বেশি সন্তান নিলে পাওয়া যাবে বাড়তি বেতন আর বাড়িতে সন্তানপালনের জন্য সহায়তাকারী কাউকে রাখলে তাঁর বেতনও দেবে রাজ্য সরকারই।

আরও পড়ুন: আরএসএস এবং নেতাজির লক্ষ্য আসলে একই? সুভাষচন্দ্রকে নিয়ে কী ‘অজানা’ কথা মোহন ভাগবতের…

সিকিমে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার খুবই কম। এ রাজ্যের নারীরা একটির বেশি সন্তান নিতে আগ্রহী নন। সিকিমের আদিবাসী ভুটিয়া ও লিমবু সম্প্রদায়ে একাধিক সন্তান নেওয়া প্রবণতা আশঙ্কাজনক হারে কমেছে। সেটা যাতে বাড়ে সেই দিকে তাকিয়ে এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রেম সিং তামাং সেখানকার মহিলা সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন ও আনুষঙ্গিক সুবিধা বাড়ানোর কথা প্রস্তাব করেছেন। তাঁর প্রস্তাবনা অনুযায়ী, তাঁরা দ্বিতীয় সন্তান নিলে এক দফা বেতন বাড়বে, এর বেশি সন্তান নিলে বেতন আরও বাড়ানো হবে।

কদিন আগে সিকিমের রাজধানী গ্যাংটকে এক অনুষ্ঠানে প্রেম সিং তামাং বলেছেন, ‘স্থানীয় মানুষের মধ্যে সন্তান নেওয়ার প্রবণতা বেশ কম। এটা সিকিমের জন্য বড় একটি সমস্যা। এই প্রবণতা দূর করতে আমাদের কিছু করতেই হবে।’ প্রেম সিং তামাং আরও বলেছেন, মহিলা সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা সন্তান লালনপালনের জন্য বাড়িতে যদি সহায়তাকারী রাখতে চান তবে সেই অর্থও রাজ্য সরকারই দেবে।

এই মুহূর্তে সিকিমের জনসংখ্যা মাত্র ৭ লাখ। কয়েক বছর ধরে সিকিম বার্থরেট নিয়ে সমস্যায় ভুগছে। তথ্য বলছে, গত বছর ভারতের সাপেক্ষে সিকিমে এই হার সবচেয়ে কম (১.১) ছিল! 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।