এক সিরিজ হারলেই সরানো হবে, হার্দিককে এটা বলা চলবে না- নির্বাচকদের সতর্ক করল কপিল – If Hardik Pandya is captain, they should not say if you lose one series, we will remove you

Advertisement

অধিনায়কত্ব এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম আলোচিত বিষয়। এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি, তাতে রোহিত শর্মা এখন ওয়ানডে এবং টেস্ট দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। আর টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে রোহিতকে বিশ্রাম দেওয়ার কারণে, তাঁর অনুপস্থিতিতে হার্দিক পাণ্ডিয়া টি-টোয়েন্টি টিমকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। যদিও সরকারি ভাবে হার্দিককে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক ঘোষণা করা হয়নি, তবে আপাতত প্রথম বারের মতো, দু’টি ভারতীয় দল দুটি ভিন্ন খেলোয়াড়ের নেতৃত্বে রয়েছে।

তবে হার্দিককে যে পূর্ণ টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করা হবে, তা নিয়ে বিসিসিআই-এর যাবতীয় পরিকল্পনা তৈরি। ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে বিসিসিআই-এর কাছে একমাত্র উদ্বেগের বিষয় হল, হার্দিকের ফিটনেস। হার্দিকের শারীরিক পরিস্থিতি কি তাঁকে সীমিত ওভারের সব ম্যাচ খেলতে দেবে, বিশেষ করে এখন যখন তিনি বোলিং করছেন?

আরও পড়ুন: ম্যাচের সেরাকে কীভাবে বসিয়ে দেওয়া হয়- সূর্য প্রসঙ্গে কপিল

হার্দিক এখনও পর্যন্ত ভারতের অধিনায়ক হিসেবে তাঁর মেয়াদে বেশ ভালো করেছেন। তিনি আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড এবং অতি সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দলকে জিতিয়েছেন। রোহিত এবং বিরাট কোহলি ভারতের টি-টোয়েন্টি পরিকল্পনা থেকে অনেকটা দূরে সরে যাওয়ায়, হার্দিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ২০২৪ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার সময়ে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেবেন, এমনটাই আশা করা হচ্ছে। ভারতের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়কদের একজন, কপিল দেব মনে করেন যে, হার্দিক কিছু ভুল-ত্রুটি করলেও, তারকা অলরাউন্ডারকেই বিসিসিআই-এর দীর্ঘমেয়াদী বিকল্প হিসেবে ভাবা উচিত, তাঁকেই সমর্থন করা দরকার।

আরও পড়ুন: ভিডিয়ো: কত ধরনের খাবার রায়পুরের ড্রেসিংরুমে, চাহাল খেলেন পাস্তা!

কপিল গালফ নিউজকে বলেছেন, ‘আমার মনে হয় না, বিশ্বের বাকিদের দিকে তাকানো উচিত। নিজেদের দল নিয়েই চিন্তাভাবনা করা উচিত। হার্দিক পাণ্ডিয়া যদি অধিনায়ক হন, তা হলে এমনটা বলা উচিত নয় যে, একটি সিরিজ হারলেই ওকে সরিয়ে দেওয়া হবে। যদি কাউকে অধিনায়ক করা হয়, ভালো ফল পেতে হলে, তাকে একটি মোটামুটি লম্বা সময় দিতে হবে। ও ভুল করবে। কিন্তু মূল বিষয় হল, ভুল-ত্রুটি নিয়ে পড়ে না থেকে, দেখতে হবে ও দলের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য প্রস্তুত কিনা। এবং ভবিষ্যতের দিকে তাকাতে হবে। ওর উপর ফোকাস করা উচিত। সিরিজ বাই সিরিজে যাওয়া ঠিক নয়।’

হার্দিক এখন রোহিতের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন। গত বছর ভারতীয় ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব নিয়ে রীতিমতো মিউজিক্যাল চেয়ার খেলা হয়েছে। ঋষভ পন্ত, শিখর ধাওয়ান এবং কেএল রাহুল সহ প্রায় সাত জন ক্রিকেটারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। রাহুলকে দীর্ঘতম সময়ের জন্য রোহিতের কাছ থেকে দায়িত্ব নিতে দেখা গিয়েছে, কিন্তু তাঁর খারাপ ফর্মই হার্দিককে সুবিধে করে দিয়েছে।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।