Shubman Gill father Lakhwinder Singh Gill elated with his son 1st double century in ODI against New Zealand

Advertisement

সব্যসাচী বাগচী 

সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar), সচিন তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar), ভি ভি এস লক্ষ্মণ (VVS Laxman), বীরেন্দ্র শেহওয়াগ, (Virender Sehwag) যুবরাজ সিং-সহ (Yuvraj Singh) আরও অনেকে ২৩ বছরের ছেলেটাকে নিয়ে একটাই কথা বলছেন। ‘নেক্সট বিগ থিং ইন ইন্ডিয়ান ক্রিকেট’। ওঁর দৃষ্টিনন্দন ভঙ্গিতে একদিনের ক্রিকেটে প্রথম দ্বিশতরানের পর শুভমন গিলের ব্যাটিংয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই। যা নিউজিল্যান্ডের (New Zealand) বিরুদ্ধে প্রথম একদিনের পর থেকে আরও বেড়েছে। ভবিষ্যতে বেড়েই যাবে। 

গত ১৫ জানুয়ারি গিল পরিবারের কাছে সবচেয়ে সুখের দিন হতেই পারত। শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka) বিরুদ্ধে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে শুভমন শতরান করলেও, একমাত্র ছেলে ৯৭ বলে ১১৬ রান করে উইকেট ছুড়ে আসেন। তাই ওঁর বাবা-মা লখবিন্দর সিং (Lakhwinder Singh Gill) ও কীর্ত কৌর সেদিন উচ্ছ্বসিত ছিলেন না। 

তবে এবার ওঁরা গর্বিত। ছেলে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে প্রথম দ্বিশতরান করার জন্য স্বভাবতই গিল দম্পতি গর্বিত। তবে যে ভঙ্গিমায় শুভমন ব্যাট করে বিপক্ষের ডেলিভারিগুলো গ্যালারিতে ফেলেছেন, সেটা নিয়ে ওঁরা আরও বেশি আনন্দে ভাসছেন। কারণ, ওঁদের ছেলের জন্যই তো জয়ের ভিত তৈরি হয়েছিল।

শুভমনের ১৪৯ বলে ২০৮ রানের সৌজন্যেই টিম ইন্ডিয়া (Team India) প্রথমে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ৩৪৯ রান তুলে দিয়েছিল। বৃহস্পতিবার মোহালি থেকে জি ২৪ ঘণ্টাকে টেলিফোনে লখবিন্দর সিং বলেন, “শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম একদিনের ম্যাচে ও শতরান হাতছাড়া করেছিল। এরপর তাদের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে ফর্মে থাকলেও, মাঠে ফেলে এসেছিল ডাবল সেঞ্চুরি। সেই দুটি ম্যাচে ওর আউট হওয়ার ধরণ দেখে আমি খুব হতাশ হয়েছিলাম। পরে ফোনে কথা বলার সময় বকাঝকাও করেছি। মনে হচ্ছে সেই ওষুধটা কাজে লেগেছে।” 

দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে টেস্ট ও ৫০ ওভারের ফরম্যাটে পঞ্জাব তনয় ইতিমধ্যেই নিজেকে মেলে ধরেছেন। পরিসংখ্যান সেই দিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে। ১৩ টেস্টে তাঁর রান ৭৩৬। গড় ৩২.০০। স্ট্রাইক রেট ৫৭.৮৭। সঙ্গে রয়েছে ১টি শতরান ও ৪টি অর্ধ শতরান। একদিনের ক্রিকেটেও তরুণ ওপেনার টিম ম্যানেজমেন্টের ভরসার মর্যাদা দিয়েছেন। ১৯ টি ম্যাচে ইতিমধ্যেই ১১০২ সেরে ফেলেছেন তিনি। গড় ৬৮.৮৭। স্ট্রাইক রেট ১০৯.০০। খুব কম সময়ে ৩টি শতরানের সঙ্গে তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ৫টি অর্ধ শতরান। 

শুধু শতরান নয়, আরও একটি অভাবনীয় কীর্তি গড়ে ফেলেছেন টিম ইন্ডিয়ার তরুণ তুর্কি। নিজের একদিনের ক্রিকেট কেরিয়ারে এক হাজার রানের গণ্ডিও পেরিয়ে গিয়েছেন তিনি। তাও মাত্র ১৯ ইনিংসে। ভারতের দ্রুততম ক্রিকেটার হিসাবে এই কীর্তি গড়েছেন শুভমন। এর আগে ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত হাজার রানের গন্ডি পেরোনোর রেকর্ড ছিল যুগ্মভাবে বিরাট কোহলি (Virat Kohli) এবং শিখর ধাওয়ানের (Shikhar Dhawan) দখলে। তাঁরা এই কীর্তি গড়েছিলেন ২৪ ইনিংসে। শুধু ভারতের নিরিখে নয়, গোটা বিশ্বে দ্রুততম হাজার রান তোলার নিরিখেও গোটা বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে চলে এলেন শুভমন। একমাত্র পাকিস্তানের ফকর জামান তাঁর চেয়ে কম ইনিংসে (১৮) একদিনের হাজার রানের গণ্ডি পেরিয়েছেন। এরমধ্যে ২০২৩ সালে ৪ ম্যাচে করেছেন ৪১৫ রান। গড় ১০৩.৭৫। স্ট্রাইক রেট ১৩০.৫০। এরমধ্যে রয়েছে পরপর দুটি শতরান ও একটি অর্ধ শতরান।  

আরও পড়ুন: Shubman Gill 208: তিন দ্বিশতরানকারীর আড্ডা, রোহিতের সামনেই ঝামেলায় জড়ালেন শুভমন-ঈশান!

আরও পড়ুন: Shubman Gill, IND vs NZ: ঈশানকে টপকে ভারতের সবচেয়ে তরুণ ব্যাটার হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি! সচিন-বীরু-রোহিতের তালিকায় এবার শুভমন

স্বভাবতই ছেলের এমন ব্যাটিংয়ে আপ্লুত লখবিন্দর। ওঁর প্রতিক্রিয়া, ” আমার ছেলে দেশের হয়ে রান করছে, এটা দেখতে অবশ্যই ভালো লাগে। জানতাম দলে সুযোগ পেলেই রান করবে। সত্যি বলতে ওর ব্যাটিং দেখা চোখের শান্তি। বাবা হিসেবে নয়, কথাটা একজন দর্শক হিসেবে বলছি।” 

Advertisement

ছোটবেলা থেকে বাবার কাছে এই অনুশীলনই কাজে লাগিয়েছেন এই ওপেনার। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিডনি, ব্রিসবেন থেকে শুরু করে এবার ঘরের মাঠেও দাপট দেখাচ্ছেন ব্যাটে। বিপক্ষ বোলারদের পেস, বাউন্স কোনও কিছুতেই ঘাবড়ে যাননি তিনি। মোহালিতে ছোটবেলা থেকেই মনপ্রিত গোনি, হরমিত সিং বনসলের মতো সেরা পঞ্জাব পেসারদের বিরুদ্ধেও অনুশীলন করতেন শুভমন। সেটাই কাজে এসেছে। 

লখবিন্দর ফের যোগ করেন,  “৯ বছর বয়স থেকে ওকে রোজ দেড় হাজার বল খেলাতাম। পেস বোলিংয়ের বিরুদ্ধে অনুশীলন করানোর জন্য সামনে খাটিয়া রাখতাম। তার ওপর বল ফেলতাম যাতে দ্রুত বল পৌঁছায় ওর কাছে। একটা স্টাম্প রেখেও বল করতাম যাতে ব্যাটের মাঝখানে খেলতে শেখে ও। ম্যাট পেতে তার ওপর বল বাউন্স করাতাম। যাতে ব্যাট করার সময় বাড়তি বাউন্সের সঙ্গে পরিচিত হয়ে যায় শুভমন।” 

লখবিন্দর নিজে ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন। কিন্তু সংসারের চাপে সেই স্বপ্ন পূর্ণ হয়নি। তাই ছেলেকে নিয়েই এখন ওঁদের যত স্বপ্ন। গিল পরিবারের সেই স্বপ্ন দেখা অবশ্য স্বাভাবিক। কারণ, শুভমন যে প্রমাণ করে দিয়েছেন যে ও ‘নেক্সট বিগ থিং ইন ইন্ডিয়ান ক্রিকেট।’ 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)   

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।