Sushma Swaraj Old Video on Uttarakhand: ‘উন্নয়নের নামে পরিবেশের ওপর হামলা’, জোশীমঠ ডুবতেই ভাইরাল সুষমার পুরোনে ভিডিয়ো

Advertisement

উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠে ধস নামতেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে কংগ্রেস। ভূমিধস এবং পরপর বাড়িতে ফাটল ধরার ঘটনায় গেরুয়া শিবিরকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে হাত শিবির। স্থানীয় মানুষ এবং অনেক বিশেষজ্ঞরও মত, উন্নয়নের নামে বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের জেরেই এই ধস নেমে থাকতে পারে। এই আবহে এনটিপিসির জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, চারধাম সংযোগকারী জাতীয় সড়কের মতো প্রকল্পের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে অনেকেই। এই আবহে এবার ভাইরাল হল ভারতের প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সংসদের সংসদের বক্তৃতার একটি পুরোনো ভিডিয়ো। সেই ভিডিয়োতে তাঁকে পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে উত্তরাখণ্ডের উন্নয়নমূলক প্রকল্পের বিরোধিতা করতে শোনা গিয়েছে। (আরও পড়ুন: মাঝ আকাশে মুখ দিয়ে রক্ত বেরিয়ে মৃত্যু যাত্রীর, রুট বদলে জরুরি অবতরণ বিমানের)

২০১৩ সালে লোকসভায় সুষমা স্বারাজের বক্তৃতার এই ভিডিয়োতে তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘উত্তরাখণ্ডে উন্নয়নের নামে প্রকৃতি ও পরিবেশের বিরুদ্ধে ভয়াবহ হামলা চলছে। এটা (কেদারনাথ বন্যা) তারই ফল। আমরা উন্নয়ন কার জন্য করছি? কার জন্য আমরা কোটি কোটি টাকা খরচ করছি? একদিন প্রকৃতি ক্ষিপ্ত হবে, ধ্বংস করে দেবে সবকিছু। কবে আমরা চোখ খুলব? এই বিপর্যয়ের পরও চোখ খুলবে না?’ সুষমার দশক পুরোনো ভিডিয়োটি টুইট করেছেন বিজেপি নেত্রী ঊমা ভারতী। সুষমা স্বরাজের ভিডিয়ো টুইট করে ঊমা ভারতী লেখেন, ‘আমার বড় বোন এবং লোকসভার তৎকালীন বিরোধী দলের নেতার বক্তৃতার একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল এবং আমি তা দেখেছি। যিনি এই ভিডিয়ো ভাইরাল করেছেন, তিনি আমাকে গঙ্গার স্রোতে ফেরত পাঠিয়েছেন। এই ভিডিয়োটি মনোযোগ দিয়ে শুনুন। এই ছলছলিয়ে কলকলিয়ে বয়ে যাওয়া গঙ্গার স্রোত কী বলবে? যুগে যুগে প্রবাহিত, এই পুণ্য প্রবাহ (গঙ্গা) আমাদের।’

উল্লেখ্য, উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠের পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হচ্ছে। হিমালয়ের গাড়োয়াল অঞ্চলে অবস্থিত জোশীমঠের ৬০০টিরও বেশি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে। ধসে পড়েছে মন্দির। পর্যটকদের জন্য বন্ধ করা হয়েছে এশিয়ার দীর্ঘতম রোপওয়ে। একাধিক হোটেল পুরোপুরি বন্ধ করা হয়েছে। আপাতত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলিকে সুরক্ষিত জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জোশীমঠের অস্তিত্ব নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনে বেশ কয়েক সেন্টিমিটার ‘ডুবে’ গিয়েছে জোশীমঠ। সেখানে ফাটল ধরা বাড়ি এবং হোটেল চিহ্নিত করে ভাঙার কাজ চলছে। দাবি করা হয়, ‘পুরনো ভূমিধ্বসের উপর’ তৈরি হয়েছিল চামোলি জেলার এই শহরটি। এই কারণেই বারবার প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয় জোশীমঠ। এই পরিস্থিতিতে মানুষের উন্নয়নের ‘ভার’ হয়ত নিতে পারছে না জোশীমঠের মাটি।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।