Bidhannagar: ২৫ কোটি টাকার প্রলোভন দেখিয়ে ২ কোটির প্রতারণা, গ্রেফতার মহিলা

Advertisement

প্রায় আড়াই কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে এক মহিলাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ২ কোটি ৩৫ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ জানিয়েছিলেন সল্টলেকের বাসিন্দা সোমনাথ বসাক। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বেঙ্গালুরু থেকে ওই মহিলাকে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ধৃতের নাম শ্বেতা সোনালি (৩৯)। অভিযুক্ত বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা। বিনিয়োগের নামে মোটা টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ওই মহিলা। আর সেই ফাঁদে পা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন সল্টলেকের ওই বাসিন্দা।

সোমনাথ বাবুর অভিযোগ, ওই প্রতারকের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ হয়েছিল একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এরপরেই ওই মহিলা সোমনাথ বাবুকে আড়াই কোটি টাকা বিনিয়োগের পরিবর্তে ২৫ কোটি টাকা পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়েছিলেন। সেই প্রলোভনে পা দিয়ে ওই মহিলার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রায় ২ কোটি ৩৫ টাকা পাঠিয়ে দেন। আর তারপরে ওই মহিলা সোমনাথবাবুর সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় বলে অভিযোগ। বেশ কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন সোমনাথবাবু। শেষে তিনি বুঝতে পারেন যে প্রতারিত হয়েছেন। দেরি না করে তিনি বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে পুলিশ বেঙ্গালুরু থেকে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে। সেখান থেকে ট্রানজিট রিমান্ডে তাকে আনা হয় বাংলায়।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের কাছ থেকে প্যান কার্ড, আধার কার্ড সহ ৭টি এটিএম কার্ড এবং মোবাইল ফোন উদ্ধার হয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই মহিলার স্বামী একটি সংস্থার পরিচালক। সেই সংস্থার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো হয়েছিল এবং সেই অ্যাকাউন্ট থেকেই টাকা তোলা হয়েছিল কেরল এবং দুবাইয়ে। ধৃতকে রবিবার বিধাননগর আদালতে তোলা হলে বিচারক তার পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।