Amazing Facts: ১,০০০ কোটি টাকার হিরে পেপারওয়েট হিসেবে ব্যবহার করতেন! সেটাই ‘কাল’ হয়েছিল

Advertisement

বৃহস্পতিবার রাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন হায়দরাবাদের অষ্টম নিজাম মহররম জাহ বাহাদুর। তাঁর দাদা মীর ওসমান আলি খান ছিলেন হায়দরাবাদের সপ্তম নিজাম। অনেকের মতে, তৎকালীন বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তি ছিলেন তিনি। অবশ্য সত্যিই তাঁর মোট সম্পদের অঙ্ক অবাক করার মতো। বর্তমান মুদ্রাস্ফীতির হিসাবে তাঁর প্রায় ২৩৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মোট সম্পদ ছিল। ফলে এখনকার দিনের সঙ্গে তুলনা করলে ইলন মাস্ক, বার্নার্ড আর্নল্ট, জেফ বেজোসদের টেক্কা দিতেন তিনি। ১৯৬৭ সালে ৮০ বছর বয়সে তাঁর মৃত্যু হয়। আরও পড়ুন: শীঘ্রই ইলন মাস্ককে টপকে বিশ্বের দ্বিতীয় ধনীতম ব্যক্তি হতে পারেন গৌতম আদানি

মীর ওসমান আলির শৌখিন অভ্যাস

টাকার অন্ত নেই। ফলে শখ-শৌখিনতাও ছিল সীমাহীন। মীর ওসমান আলির বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল রোলস রয়েস গাড়ি ছিল। সেটা না হয় এখনকার বিলিয়নেয়ারদেরও থাকে। কিন্তু তাঁর এমন একটি জিনিস ছিল, যা শুনলে সকলে ভিরমি খাবেন। একটি ‘জ্যাকব ডায়মন্ড’ ছিল মীর ওসমান আলির কাছে। অত্যন্ত বড় ও অপূর্ব এই হিরে বর্তমান হিসাবে দাম ছিল প্রায় ১,০০০ কোটি টাকা! মজার বিষয় হল, এই হাজার কোটির হিরে স্রেফ পেপারওয়েট হিসাবে ব্যবহার করতেন হায়দরাবাদের নিজাম।

ওসমান আলি খানের বাবা মেহবুব আলি খান হায়দরাবাদের ষষ্ঠ নিজাম ছিলেন। তিনি নাকি এই বিশাল হিরেটিই তাঁর চপ্পলের জগায় লাগিয়েছিলেন। তবে পরে সেটি খুলিয়ে পেপারওয়েট হিসাবে ব্যবহার করতেন ওসমান আলি। লোকমতে, এই হিরেই নিজামদের জীবনে দুর্ভাগ্য ডেকে আনে। মাত্রারিতিক্ত খরচ, টালমাটাল রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট, আর্থিক স্থিতির অভাবে টলে যায় নিজামদের শাসনের ক্ষমতা। 

১৯৯৫ সালে নিজামস ট্রাস্ট থেকে ভারত সরকার এই হিরে কিনে নেয়। বর্তমানে এটি মুম্বইতে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের একটি সুরক্ষিত ভল্টে রাখা আছে।

জ্যাকবী হিরার কিংবদন্তি

বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম পালিশ করা হিরে এটি। এর ওজন ১৮৪.৭৫ ক্যারেট বা ৪০ গ্রাম। আলেকজান্ডার ম্যালকন জ্যাকবের নামে এর নামকরণ। ১৮৯১ সালে বেলজিয়ান সিন্ডিকেট থেকে এই হিরে কিনেছিলেন তিনি। এটি কোহিনুরের থেকেও আকারে বড়। আরও পড়ুন: Richest Women in India: দেশের ধনীতম মহিলা এঁরাই, আছে কিছু চমক!

হায়দরাবাদের নিজাম জ্যাকবের কাছ মাত্র ২৫ লক্ষ টাকায় হিরেটি কিনে নেন। আসলে, এই হিরের দাম আরও বেশিই হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেই সময়ে এত বেশি টাকা দিয়ে একটি হিরে কিনবেন, এমন কোনও ক্রেতা খুঁজে পাননি ম্যালকন জ্যাকব। ফলে অনেকটাই সস্তায় সেই হিরে বিক্রি করতে বাধ্য হন তিনি। পরে এই সংক্রান্ত দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েন জ্যাকব। তাতে কার্যত নিঃস্ব হয়ে যান তিনি। মুম্বইতে ১৯২১ সালে মৃত্যু হয় তাঁর।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।