Watch Video of Nepal Plane Crash: পোখরার পুরনো ও নতুন বিমানবন্দরের মাঝে নদীর তীরে ভেঙে পড়ে বিমানটি, দেখুন ভিডিয়ো

Advertisement

নেপালের পোখরা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল ইয়েতি এয়ারলাইন্সের এক বিমান। টেকঅফের ২০ মিনিট পরই গন্তব্যস্থল পোখরা বিমানবন্দরের কাছে চলে এসেছিল হতভাগা বিমানটি। তবে অবতরণের আগেই নতুন ও পুরোনো বিমানবন্দরের মাঝামাঝি একটি জায়গায় জঙ্গলে ভেঙে পড়ে বিমানটি। ইয়েতি এয়ারলাইন্সের এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার কিছু ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রশ্ন উঠেছে, কেন এই বিমান দুর্ঘটনাটি ঘটল। বিমান দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত শুরু হবে। তবে মাঝ আকাশে বিমানটিকে বাঁদিকে হেলে যেতে দেখা যায়। যা থেকে আশঙ্কা করা হচ্ছে, বিমানের কোনও যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়ে থাকতে পারে

জানা গিয়েছে, বিমানকর্মী এবং যাত্রী সহ বিমানে মোট ৭২ জন ছিলেন। ইতিমধ্যেই দুর্ঘটনার যে ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে তা থেকে অনুমান করা হচ্ছে, সম্ভবত বিমানের কোনও যাত্রীই বেঁচে নেই। দুপুর ১টা পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থল থেকে মোট ৪০টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও কোনও যাত্রীকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা যায়নি। সংবাদ সংস্থার খবর অনুযায়ী, মৃতদের মধ্যে পাঁচ ভারতীয়ও রয়েছেন। (আরও পড়ুন: জঙ্গিদের জেরা করে মিলল ৩ টুকরো করা মৃতদেহ, ২৬ জানুয়ারির আগে কী ঘটল দিল্লিতে?)

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, ভেঙে পড়ার পর দাউ দাউ করে জ্বলছে বিমানটি। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছে গোটা এলাকা। স্থানীয়রা সেখানে গিয়ে যাত্রীদের উদ্ধারের চেষ্টা করছেন বটে। তবে আগুনের তীব্র তাপে বিমানের পাশে যাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। নেপালে ঘটে যাওয়া ইদানীংকালের সবথেকে ভয়াবহ দুর্ঘটনা এটি। অপর একটি ভাইরাল ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, জনবসতির ওপর দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একদিকে হেলে গিয়ে ভূমির দিকে ধেয়ে যাচ্ছে বিমান। পরিসংখ্যান ঘাঁটলে দেখা যাবে, গত ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে নেপালে অন্তত ২৭টি ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা ঘটেছে। কয়েক মাস আগেও একটি বিমান দুর্ঘটনার সাক্ষী থেকেছিল নেপাল। গতবছর তারা এয়ারের জেট বিমানটি দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিল। সেই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল ২২ জনের।

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, পোখারা থেকে কাঠমান্ডু যাচ্ছিল ইয়েতি এয়ারলাইন্সের বিমানটি। নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথরিটি জানিয়েছে, ইয়েতি এয়ারলাইন্সের 9N-ANC ATR-72 বিমানটি কাঠমান্ডু থেকে সকাল ১০টা ৩৩ মিনিটে উড়ে গিয়েছিল পোখরার উদ্দেশে। তবে পোখরা বিমানবন্দরে অবতরণের সময় পুরনো বিমানবন্দর ও নতুন বিমানবন্দরের মাঝে সেতি নদীর তীরে ভেঙে পড়ে বিমানটি। এদিকে ফ্লাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট FlightRadar24 অনুসারে, দুর্ঘটনার কবলে পড়া ATR72 বিমানটির বয়স ছিল ১৫ বছর। ATR72 হল টুইন ইঞ্জিন টার্বোপ্রপ এয়ারলাইনার। এয়ারবাস এবং ইতালির লিওনার্দো যৌথ উদ্যোগে তৈরি করে এই বিমান। ইয়েতি এয়ারলাইন্সের কাছে মোট ছয়টি ATR72-500 বিমান রয়েছে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।