Shark Tank India update: ‘বোকার মতো কথা বলো না…’ শার্ক ট্যাংকে হঠাৎ পীযুষকে কেন আক্রমণ করলেন অনুপম

Advertisement

শার্ক ট্যাংক ইন্ডিয়া সিজন ২-এর সাম্প্রতিকতম পর্বের একদম শুরুতে দেখা যায় জামশেদপুরের বিনীত সারাইওয়ালাকে। তিনি এটিপিক্যাল অ্যাডভান্টেজের প্রতিষ্ঠাতা। বিনীত চোখে দেখতে পান না। তাঁর চোখের সমস্যা আছে। তিনি শার্কসদের সামনে এমন তথ্য তুলে ধরেন যেখানে দেখা যায় বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের বেকারত্বের হার কতটা বেশি। তাঁর মতে ওঁদের সমান অধিকার আছে চাকরি পাওয়ার। তিনি জানান করোনার সময় তিনি বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের থেকে এত চিঠি, ইত্যাদি পেয়েছেন চাকরি চেয়ে যে তিনি নিজের কাজ ছেড়ে দিয়ে এটা শুরু করেছেন। তিনি জানান তাঁর এই প্ল্যাটফর্মের জন্য ১০০০ জনের শৈল্পিক কাজ, ৫০০ জনের বেশি শিল্পী সহ একাধিক ব্যক্তি যুক্ত আছেন। তিনি শার্কদের কাছে ৩০ লাখ টাকার কথা বলেন ১ শতাংশ ইকুইটির বদলে।

তাঁর বক্তব্য শুনে অমন, অনুপম এবং নমিতা তাঁকে ৩০ লাখ টাকা দেওয়ার কথা বলেন কিন্তু ৪ শতাংশ ইকুইটিতে। তখন পীযুষ বিনীতকে বলেন যে তাঁর বোনও, যিনি কিনা পেশায় একজন সিএ তিনিও বিশেষভাবে সক্ষম। তিনি জানান তাঁর বোন তাঁর খুব কাছের। তিনি ওকে ১ কোটি টাকা অফার করেন ১২ শতাংশ সুদে। এটা শুনে বিনীত তাঁকে উল্টে অফার দেন । তিনি পীযুষকে ৯০ লাখ দিতে বলেন এবং অন্য শার্কদের বাকিরা ভাগ করে দিতে বলেন। কিন্তু পীযুষ তাতে মোটেই খুশি হন না। অনুপম বিনীতকে বোঝানোর চেষ্টা করেন যে তিনি বিভিন্ন ধরনের শিল্পে এক্সপার্ট। এতে বিনীত বলেন দুজন শার্ক ৪৫ লাখ করে দিক আর দুজন ১৫ করে। তিনি চান যে ওঁরা সকলে মিলে তাঁকে সাহায্য করুক। তাঁকে বুদ্ধি দিক। পীযুষ অবশেষে তাঁকে ১০ শতাংশ ইকুইটিতে ১ কোটি টাকা দিতে রাজি হয়। তিনি চান না যে অন্য শার্করা কেউ এই ডিলের অংশ হন। এতেই অনুপম ভীষণ রেগে যান। এবং দুজনের মধ্যে তর্ক বেঁধে যায়।

এরপর ঝগড়া বাড়তে বাড়তে এমন জায়গায় যায় যে শেষ পর্যন্ত তাঁরা দুজনেই এই ডিল থেকে বেরিয়ে যান। এবং বিনীত অমন এবং নমিতার দেওয়া ডিল মেনে নেন। ওঁদের থেকে তিনি ৩০ লাখ করে নেন ৩ শতাংশ ইকুইটিতে।

বিনীত চলে যাওয়ার পর অনুপম পীযুষকে ভীষণ মুখ করেন। শুধু তাই নয়, তাই নয়, তিনি পীযুষকে বোকা বলে দেগে দেন। পীযুষ প্রথম দিকে তর্ক চালালেও শেষ পর্যন্ত চুপ করে যান।

এরপর এদিন আকৃতি এবং পুনম রাওয়াল তাঁদের চিকনকারি বিজনেসের জন্য পিচ করেন শার্ক ট্যাংকে এসে। এটা তাঁদের মা মেয়ের যৌথ উদ্যোগ। জানান তাঁরা কীভাবে এই ব্যবসা শুরু করেছিলেন। এবং এই অনুষ্ঠান থেকে তাঁদের ৭৫ লাখ টাকা চান ১ শতাংশ ইকুইটিতে। তাঁদের এই ব্যবসার প্রতি ভালোবাসা, উন্মাদনা দেখে শার্করা তাঁদের বিভিন্ন অফার দেন। শেষ পর্যন্ত ওঁর অমন এবং পীযুষের অফারে রাজি হন। ওঁরা এই ব্যবসার জন্য ৭৫ লাখ টাকা দেবেন বলে জানান ৩.৭৫ শতাংশ ইকুইটিতে। আকৃতি এবং পুনম চলে গেলে অমনরা হেসে কুটোপুটি খান যে তাঁরা কোনদিন ভাবেননি এমন কোনও ব্যবসায় তাঁরা বিনিয়োগ করবেন। নমিতা অবশ্য ওঁদের ভীষণ উৎসাহ দেন যে তাঁরা দুজন মহিলার ব্যবসাকে এভাবে সাহায্য করলেন।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।