Bengal thrash Madhya Pradesh by 5-0 goal

Advertisement

বাংলা-৫  (রবি-২, নরহরি-২, টোটন)

মধ্যপ্রদেশ -০ 

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: হরিয়ানার (Haryana) বিরুদ্ধে ৩-০ ব্যবধানে জয়। দ্বিতীয় ম্যাচে দমন ও দাদরাকে (Daman and Dadra) ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া। আর এবার মধ্যপ্রদেশকেও (Madhya Pradesh) ৫-০ গোলের মালা পরাল বাংলা। তিন ম‍্যাচে ১৩ গোল করে বাংলা চতুর্থ গ্রুপে খুব ভাল জায়গায় রয়েছে। নরহরি শ্রেষ্ঠার (Narhari Srestha) বঙ্গব্রিগেড চলতি সন্তোষ ট্রফিতে (Santosh Trophy 2023) জয়ের হ্যাটট্রিক করলেও, কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য (Biswajit Bhattachrya) একেবারেই শান্ত থাকতে পারছেন না। বরং কোলহাপুরের ছত্রপতি শাহু স্টেডিয়াম (Kolhapur Chatrapati Shahu Stadium) ও কর্তাদের বিরুদ্ধে তোপ উগরে দিলেন। কারণ সন্তোষ ট্রফিকে ঘিরে তীব্র অসন্তোষ রয়েছে।   

পরপর তিন ম‍্যাচে জয়ের পাশাপাশি ১৩ টি গোল করলেও বাংলা সতর্ক। এখনও দুটি ম‍্যাচ বাকি আছে। ১৩ জানুয়ারি ছত্তিশগড় ও ১৫ জানুয়ারি মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে খেলবে বাংলা। তবে সেই দুটি ম্যাচ খেলতে নামার আগে সন্তোষ ট্রফির ক্রীড়াসূচি থেকে মাঠ সমস্যা নিয়ে ফের অভিযোগ করেছেন বাংলার কোচ। এদিনের খেলা সকাল সাড়ে আটটায় দেওয়া প্রসঙ্গে বিশ্বজিৎ ফোনে জি ২৪ ঘণ্টাকে বলছেন, ‘স্কুল গেমসে এমন সকাল সাড়ে আটটায় খেলা দেওয়া হয় বলে শুনেছি। সন্তোষ ট্রফির মতো টুর্নামেন্টে যা সূচি করা হয়েছে, তাতে ভাল ফুটবল কীভাবে সম্ভব সেটা বুঝতে পারছি না। এভাবে ফুটবলের উন্নতি সম্ভব নয়।’ 

আরও পড়ুন: PELE, IND vs SL: বাইশ গজের যুদ্ধে পেলে-কে স্মরণ! কীভাবে অভিনব উদ্যোগ নিচ্ছে সিএবি?

আরও পড়ুন: East Bengal: বিপক্ষকে ৩৫ গোল! মশাল জ্বালিয়ে লাল-হলুদের মেয়েদের ইতিহাস

এদিকে পাঁচ গোলের জয়ের পিছনে রবি হাঁসদা (Rabi Hansda) ও নরহরি শ্রেষ্ঠার (Narhari Srestha) উল্লেখযোগ্য অবদান আছে। আগের ম‍্যাচের মতোই মধ‍্যপ্রদেশের বিরুদ্ধেও জোড়া গোল করলেন রবি এবং অধিনায়ক নরহরি। একটি গোল করেছেন প্রথম ম‍্যাচে গোল পাওয়া তোতন দাস (Totan Das)। তিন ম্যাচে রবির গোল সংখ‍্যা হল ৫ এবং নরহরি সমসংখ‍্যক ম‍্যাচ খেলে ৪টি গোল করলেন। 

এদিন মহারাষ্ট্রের কোলাপুরের ছত্রপতি শাহু স্টেডিয়ামে তৃতীয় ম‍্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ছিল বাংলা। জয় ছাড়া কিছুই ভাবছেন না বাংলার ফুটবলাররা। ম‍্যাচের ১৪ মিনিটে গোল করে বাংলাকে এগিয়ে দেন রবি হাঁসদা। পরে ২৪ ও ৪৫ মিনিটে দুটি গোল করেন নরহরি। ৫৩ মিনিটে গোল করেন তোতন দাস। আর ৬২ মিনিটে ফের গোল করেন রবি। যদিও ম‍্যাচে হলুদ কার্ড দেখেছেন রবি। ম‍্যাচের সেরা হয়েছেন অধিনায়ক নরহরি। 

মূল পর্বে যাওয়ার আগে বাকি দুটি ম‍্যাচও জিততে মরিয়া তিন প্রধানে কোচিং করানো বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। তিনি ফের বলেন, বিশ্বজিৎ বলছিলেন, ‘গ্রুপের অন‍্য দল কটা ম‍্যাচ জিতছে না হারছে সেই সব অঙ্কে যাচ্ছি না। আমাদের একটাই লক্ষ‍্য সব ম‍্যাচ জিতে গ্রুপ 
চ‍্যাম্পিয়ন হয়ে মূলপর্বে যাওয়া। দলের প্রত‍্যেক ফুটবলাররা খুব ভালো খেলছে। দল ছন্দে আছে। আশাকরি পরের ম‍্যাচেও ভালো খেলবে।’ 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।