পাক বন্দরে আটকে ১০৯৫ কোটি টাকার আটা, ডালের জন্য ৫ কিলোমিটার লাইন! কীভাবে মিটবে খিদে? । Pakistan Food Crisis is worsening more everyday pulses stuck at port people fighting for flour

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা এতটাই খারাপ হয়েছে যে সেখানকার মানুষ রুটিও খেতে পারছে না। পাকিস্তানের অবস্থা এমন যে মানুষ অনাহারে মরতে বাধ্য হচ্ছেন। ক্ষুধার এই পরিস্থিতির মধ্যেই পাকিস্তান এমন দেশগুলির দিকে তাকিয়ে আছে যারা ঋণ দিতে পারে। বর্তমানে পাকিস্তানে আটার দাম প্রতি কেজি ১৬০ টাকা। চিনির দাম প্রতি কেজি ১০০ টাকা এবং পেঁয়াজের দাম প্রতি কেজি ২২০ টাকা। একই সময়ে, আটার ঘাটতি এতটাই যে মানুষ ভর্তুকিযুক্ত রেশনের জন্য পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে বাধ্য হচ্ছে। অন্যদিকে, প্রধান সমস্যা হল ডালের ঘাটতি যা কেনার জন্য পাকিস্তানের কাছে ডলার নেই।

আসলে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের অভাবের কারণে পাকিস্তান অর্থনৈতিক ধ্বংসের মুখে পৌঁছেছে। ডলারের ঘাটতির কারণে পাকিস্তানের বন্দরে ডালের কন্টেনার আটকে রয়েছে। পাকিস্তান তাদের দাম দিতে পারছে না। তাদের দাম ৪.৮ মিলিয়ন ডলার (১০,৯৫,১৩,৭২,৮০০ পাকিস্তানি রুপি) বলে জানা গিয়েছে।

বন্দরে ডলারের ঘাটতি, ডালের ৬ কন্টেনার আটকে রয়েছে

আটা, ঘি, চিনির পাশাপাশি পাকিস্তানের সামনে এখন ডালের ঘাটতির নতুন সংকট দেখা দিয়েছে। রমজান মাসের আগে পাকিস্তান যদি বন্দরে দাঁড়িয়ে থাকা ৬টি কন্টেইনারের ডাল আনলোড করতে না পারে তাহলে পাকিস্তানি জনগণের জন্য রমজান ফিকে হয়ে যেতে পারে।

শিপিং কোম্পানিগুলি স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছে যে পাকিস্তান যদি ৪৮ মিলিয়ন ডলার দেয় তবেই তারা কন্টেনার ছেড়ে দিতে পারবে। অন্যদিকে করাচি হোলসেল গ্রসারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল রউফ ইব্রাহিম জানিয়েছেন যে এই কন্টেনারগুলি অবিলম্বে পাওয়া না গেলে রমজান মাসে পাকিস্তানে বড় সমস্যা হবে।

আরও পড়ুন: Mandala Beer: বিয়ারের বোতলে হিন্দুদেবীর ছবি! বিক্ষোভের আগুনে তোলপাড়…

আকাশ ছুঁতে পারে ঘি, তেল ও ডালের দাম

এই সময় আটা, চিনি এবং পেঁয়াজের পাশাপাশি ডালের দামও বাড়বে। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন যে ডালের কন্টেনারগুলি যদি বন্দরে দীর্ঘ সময় ধরে আটকে থাকে তাহলে পাকিস্তানকে মূল পরিমাণের সঙ্গে লেট ফি দিতে হতে পারে। এই বিলম্বের কারণে ডালও নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: Earth-Sized Planet: মহাকাশে আমাদের গ্রহের প্রায় পাশের পাড়াতেই মিলল এক নতুন ‘পৃথিবী’র খোঁজ… 

ইব্রাহিম বলেন, ডলার সংকটের কারণে বন্দরে তেল এবং ঘিও আটকে রয়েছে। অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখোমুখি পাকিস্তানের স্টেট ব্যাঙ্ক অফ পাকিস্তান তার প্রাথমিক বিভাগে ডাল রাখেনি। তিনি বলেন, তেল, ঘি ও ডাল দ্রুত ছাড়া না হলে পাকিস্তানে এই সব জিনিসের দাম ব্যাপকভাবে বেড়ে যাবে।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।