Urvashi-Rishabh: ‘অসভ্য’! পন্তের হাসপাতালের ছবি দিয়ে মেয়েকে সান্ত্বনা, কটাক্ষে জেরবার উর্বশীর মা

Advertisement

কেউ লিখেছেন ‘মা-মেয়ে হাত ধুয়ে পড়ে আছে অসুস্থ ছেলেটার পিছনে’, কেউ আবার বলছেন- ‘চূড়ান্ত নোংরামি, এটা মানসিক হেনস্থা’। উর্বশীর পর এবার নেটিজেনদের রোষের মুখে অভিনেত্রীর মা। কেন? সৌজন্যে মীরা রাউতেলার সাম্প্রতিক ইনস্টাগ্রাম পোস্ট। সেখানে মুম্বইয়ের কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ছবি পোস্ট করেছেন মীরা দেবী। সঙ্গে ক্যাপশনে মেয়ের উদ্দেশে তাঁর বার্তা, ‘সব কিছু এখন ঠিক আছে বেটা, চিন্তা করিস না’।

ব্যাস, এই পোস্ট দেখেই রে রে করে উঠেছেন ঋষভ পন্ত ভক্তরা। কটাক্ষের সুরে তাঁদের পালটা দাবি মীরা রাউতেলা কি সত্যিই মেয়েকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন? নাকি মেয়ের প্রেমের প্রচার চালাচ্ছেন? কেউ লিখেছেন, ‘যে কথাটা ফোনে বা হোয়াটসঅ্যাপে বলা যায়, সেটা সারা বিশ্বকে জানানোর কি দরকার?’ কেউ কেউ গোটাটাই প্রচারের আলোয় থাকার চেষ্টা বলে উল্লেখ করেন।

গাড়ি দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ভারতীয় ক্রিকেটার ঋষভ পন্তকে গত বুধবারই দেরাদুনের ম্যাক্স হাসপাতাল থেকে এয়ারলিফট করে মুম্বইয়ের কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি নিয়ে আসা হয়। পন্তের লিগামেন্ট চোট সারানোর দায়িত্ব নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ডক্টর দীনশ পার্দিওয়ালা তত্ত্বাবধানে চলছে ঋষভ পন্তের চিকিৎসা।

দু-দিন আগেই এই হাসপাতালের বাইরে ঘুরঘুর করতে দেখা গিয়েছিল উর্বশীকে, হাসপাতাল চত্বরের ছবিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন উর্বশী। যদিও ঋষভকে দেখতে তিনি হাসপাতালে ভিতরে গিয়েছিলেন কিনা তা স্পষ্ট নয়। ২০১৮-১৯ সাল নাগাদ উর্বশী-ঋষভের প্রেমের চর্চা মাথাচাড়া দিয়েছিল, তারপর অনেক জল বয়ে গিয়েছে। আসলে ঋষভ পন্তকে নিয়ে প্রচারে থাকতে ভালোবাসেন উর্বশী, এমনটাই ধারণা অনেকের। আর সেই বিতর্কের আগুনে আরও ঘি ঢালল উর্বশীর মায়ের এই পোস্ট।

উর্বশী-ঋষভের সম্পর্ক নিয়ে গত কয়েকমাস ধরেই কাটাছেঁড়া চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঋষভের অ্যাক্সিডেন্টের পরেও সেই চর্চা থামেনি। গত ৩০শে ডিসেম্বর ভোরে দিল্লি থেকে বাড়ি (রুরকি) ফেরবার পথে হরিদ্বারের মাংলাউরের কাছে একটি ডিভাইডারে ধাক্কা মারে পন্তের গাড়ি। মুহূর্তের মধ্যেই দাউদাউ করে জ্বলে উঠে ঋষভের গাড়ি। কোনওক্রমে প্রাণে বেঁচে যান তারকা ক্রিকেটার। ওইদিন বেলা গড়াতেই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট লেখেন উর্বশী। ইনস্টাগ্রামে সাদা পোশাকে নিজের একটি ছবি পোস্ট করে উর্বশী লেখেন- ‘প্রার্থনা করছি।’ সঙ্গে আবার সাদা পায়রা এবং সাদা হৃদয়ের ইমোজি জুড়ে দেন। ঋষভের জন্যই এই পোস্ট ধারণা নিন্দকদের।

দু-দিন আগেই উর্বশীর নাম ঋষভের আরোগ্য কামনা করে লেখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ার গুজব একদিকে, আর আপনার সুস্থ হয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে উত্তরাখণ্ডের নাম উজ্জ্বল করাটা অন্যদিকে। ভগবান আপনার উপর কৃপাদৃষ্টি বজায় রাখুন, আপনারা সকলে প্রার্থনা করুন’। এরই মাঝে খবর, গাড়ি দুর্ঘটনায় ঋষভের ডান পায়ের হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে গিয়েছিল, যার অস্ত্রোপচার করেছেন চিকিৎসকেরা। প্রায় ৩ ঘণ্টা ধরে অস্ত্রোপচার হয়েছে পন্তের। তবে এখনও সুস্থ হতে দীর্ঘ দিন সময় লাগবে বলে জানা গিয়েছে।

 

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।