Odisha: অর্চনার বিরুদ্ধে চার্জশিট ইডির,সেক্স ভিডিয়ো করে পাতা হত ফাঁদ, নিখুঁত ছক

Advertisement

দেবব্রত মোহান্তি

প্রতারণার অভিযোগ অভিযুক্ত ওড়িশার অর্চনা নাগ ও আরও তিনজনের বিরুদ্ধে ২২৪১ পাতার চার্জশিট পেশ করল এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট। তার স্বামী জগবন্ধু চাঁদের বিরুদ্ধেও আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে স্বামী, স্ত্রীর পাশাপাশি তাদের ব্যবসায়ীক পার্টনার খগেশ্বর পাত্র, শ্রদ্ধাঞ্জলি বেহেরার বিরুদ্ধেও এই অভিযোগ আনা হয়েছে। এর আগে অর্চনা আর জগবন্ধুর ৩.৪ কোটি টাকার বাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছিল এজেন্সি।

এদিকে গত মাসে ইডি ওড়িয়া সিনেমা প্রযোজক অক্ষয় পারিজা, সিনেমা পরিচালক প্রমোদ শাওয়ান, ব্যবসায়ী অমিয়কান্ত দাস, বিজেডি বিধায়ক সুধীর সামালের দাদা গঙ্গাধর সামাল সহ কয়েকজনকে জেরা করে।

২৮ বছর বয়সী অর্চনা নাগকে গত বছর অক্টোবর মাসে গ্রেফতার করেছিল। অক্ষয় পারিজা নামে এক সিনেমা পরিচালক দাবি করেছিল ৩ কোটি টাকা দেওয়ার জন্য় তাকে চাপ দেওয়া হচ্ছে।

আসলে কালাহান্ডির বাসিন্দা অর্চনা ও তার স্বামী। তারা মূলত যৌন সম্পর্কের রেকর্ডিং করে নানা ভাবে ব্ল্যাকমেলিং করত বলে অভিযোগ। হোয়াটস অ্যাপে ভিডিয়ো কল করে ফাঁদ পাতা হত বলে অভিযোগ। ভুবনেশ্বরের এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, ফেসবুকে প্রথমে তারা সুখী দম্পতি বলে নিজেদের জাহির করত। তারপর জগবন্ধু প্রথমে একটি তালিকা তৈরি করত কাদের সঙ্গে প্রতারণা করা হবে। সেই অনুসারে তাদের বাড়িতে ডাকা হত। এরপর অর্চনা তাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করত। এরপর গোপন ক্যামেরায় তিনি সেসব কাজ রেকর্ডিং করে রাখতেন।এরপর শুরু হত ব্ল্য়াকমেলিং। মূলত ধনীদেরই ফাঁদে ফেলা হত বলে অভিযোগ।

এমনকী ধর্ষণের অভিযোগ আনা হবে এই অভিযোগ তুলে ভয় দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা আদায় করা হত বলে অভিযোগ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রাজনীতিবিদ, সরকারি আধিকারিক, পরিচালকদের ফাঁদে ফেলা হত। এমনকী তিন কোটি টাকা আদায়ের জন্যও চাপ দেওয়া হত। এদিকে প্রতারণার মাধ্যমে আদায় করা টাকায় তারা ভুবনেশ্বরে তিনতলা বাড়়িও তৈরি করে ফেলেছিল। এমনকী ওড়িয়া টিভি সিরিয়ালের অভিনয়ও হত এই বাড়িতে।

এদিকে পুলিশ কমিশনারেটের পক্ষ থেকে আগেই অর্চনার বিরুদ্ধে চার্জশিট আনা হয়েছিল। এবার ইডি অর্চনা সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট আনল।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।