ধর্মান্তকরণ সিরিয়াস ব্যাপার, রাজনৈতিক রঙ চড়ানো ঠিক নয়, সুপ্রিম পর্যবেক্ষণ

Advertisement

ধর্মান্তকরণ নিয়ে এবার বড় বার্তা দিল সুপ্রিম কোর্ট। সোমবার দেশের শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ধর্মান্তকরণ একটি সিরিয়াস ইস্যু। ব্যাপারটা নিয়ে রাজনৈতিক রঙ চড়ানো ঠিক নয়। জোর করে ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য় এক আবেদনকারী আবেদন জানিয়েছিলেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে এবার অ্যাটর্নি জেনারেল আর ভেঙ্কটারামানির সহযোগিতা চেয়েছে আদালত।

বিচারপতি এমআর শাহ ও সিটি রবিকুমার অ্যাটর্নি জেনারেলকে গোটা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন। ভয় দেখিয়ে, লোভ দেখিয়ে , অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্মান্তকরণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলা হয় ওই আবেদনে।

আদালত অ্যাটর্নি জেনারেলকে জানিয়েছেন, আমরা আপনার সহযোগিতা চাইছি।প্রলোভন দেখিয়ে কিছু করা হলে এখন কী করা দরকার? এটা বন্ধ করার জন্য কী করা দরকার?

এদিকে সিনিয়র অ্যাডভোকেট পি উইলসন তামিলনাড়ুর পক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছেন এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রনোদিত আবেদন। রাজ্যে এই ধরনের কোনও ধর্মান্তকরণের ঘটনা হয়নি।

এনিয়ে বিচারপতিদের বেঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, আপনার এইভাবে অসন্তোষের কারণ থাকতে পারে। তবে আদালতের কাজে অন্য কিছু নিয়ে আসবেন না। আমরা গোটা রাজ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন। যদি এটা আপনার রাজ্যে হয়ে থাকে তবে এটা খারাপ। আর যদি এটি না হয় তাহলে ভালো। এটাকে একটি রাজ্যের বিরুদ্ধে আঘাত বলে গণ্য করবেন না। এটাকে রাজনৈতিক বলে গণ্য করবেন না।

অ্যাডভোকেট অশ্বিনী কুমার উপাধ্যায় ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে কড়া ব্য়বস্থা নেওয়ার জন্য কেন্দ্র ও রাজ্যের কাছে অনুরোধ করে আদালতে আবেদন করেছিলেন।

এদিকে দেশের শীর্ষ আদালত এর আগে জানিয়েছিল জোর করে ধর্মান্তরকরণ করা হলে জাতীয় সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। নাগরিকদের ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়েও সংশয় দেখা দেয়। অত্যন্ত সিরিয়াস এই ইস্যুকে মোকাবিলার ক্ষেত্রে বড় পদক্ষেপ নেওয়া দরকার বলেও সুপ্রিম কোর্টের তরফে উল্লেখ করা হয়েছিল। এনিয়ে আদালত রীতিমতো সতর্ক করে দিয়েছিল। আদালতের তরফে জানানো হয়েছিল যদি এভাবে জোর করে প্রলোভন দেখিয়ে ধর্মান্তকরণ করা হয় তবে বড় বিপদ হতে পারে।

এদিকে গুজরাট সরকার এর আগে জানিয়েছিল ধর্মীয় স্বাধীনতা মানে এটা নয় যে অন্যের ধর্ম পরিবর্তনের অধিকার জন্মে যায়। এদিকে সুপ্রিম কোর্টে দাখিল করা জনস্বার্থ মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে গোটা দেশ জুড়েই এই জোর করে ধর্মান্তকরণের সমস্যা রয়েছে।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।