অজি জাত্যাভিমানকে ঢাল করেই দু’শো হাতছাড়ার আফশোস ঢাকলেন খোওয়াজা – AUS vs SA

Advertisement

সিডনিতে সিরিজ শেষ। পঞ্চম দিনে একেবার ম্যাড়ম্যাড়ে ড্র। অল আউট হওয়া তো দুরস্ত, মাত্র দুই উইকেট পড়ল প্রোটিয়াদের। তারপরেই উঠে আসছে যে প্রশ্ন যে তাহলে কী উসমান খোওয়াজাকে ২০০ করার সুযোগ না দিয়ে ভুল করল অস্ট্রেলিয়া। প্রসঙ্গত বৃষ্টির জন্য পুরো একদিনের খেলা না হওয়ায় খোওয়াজা অপরাজিত থেকে যান ১৯৫ রানে। নিজেদের ইনিংস ডিক্লেয়ার করে প্রোটিয়াদের দুইবার আউট করার চেষ্টা করেছিলেন কামিন্স। যদিও সেটা সম্ভব হয়নি। শেষ দিন আট উইকেট পাওয়া বাকি, তখনই হাত মিলিয়ে নিলেন দুই দলের ক্রিকেটাররা।

স্বভাবতই ম্যাচের সেরা উসমান খোওয়াজা। তাঁর কাছে জিজ্ঞেস করা হল ২০০ হারানোর যন্ত্রণা নিয়ে। স্বাভাবিকভাবেই সোজা উত্তর দিলেন না তিনি। তবে নিজের হতাশা লুকানোর চেষ্টাও করেননি তিনি। খোওয়াজা বলেন যে এখন তিনি রীতিমত উপভোগ করছেন তাঁর ক্রিকেট। সিডনির উইকেট খুবই মন্থর। সেখানে স্পিনের বিরুদ্ধে ভালো খেলাটা খুব জরুরি বলেই মনে করেন খোওয়াজা। প্রসঙ্গত, এরপরেই ভারত সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া। সেখানে অশ্বিনদের বিরুদ্ধে খোওয়াজা কতটা নিজের জাত চেনাতে পারেন, সেটা দেখতে উদগ্রীব আপামর ক্রিকেট বিশ্ব।

১৯৫ রানে নট আউট থেকে যাওয়া প্রসঙ্গে উসমান খোওয়াজা বলেন যে তিনি নিশ্চিত ভাবেই ডবল সেঞ্চুরি করতে চাইবেন। কিন্তু দিনের শেষে কামিন্সের ডিক্লেয়ার করা অজিদের ক্রিকেট বিশ্বাসের নিদর্শন বলেই মনে করেন খোওয়াজা। তাঁর মতে, বাস্তবে ক্রিকেট আসলে কী হওয়া উচিৎ সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছেন তাঁর অধিনায়ক। সেখানে ব্যক্তির উর্ধ্বে সর্বদা দল। ক্রিকেটে জয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং তারজন্য যা করা দরকার সেটা করা উচিৎ। সেখানে ব্যক্তিগত মাইলফলক গৌণ। খোওয়াজা বলেন দিনের শেষে এটি দলগত খেলা ও যেসব শিশুরা খেলাটি দেখছেন তাদের বোঝা উচিৎ যে অজির সবসময়ই দলকে আগে প্রাধান্য হয়। পাকিস্তানে জন্ম হলেও ছোটোবেলাতেই অস্ট্রেলিয়ায় চলে যান উসমান খোওয়াজা। উপমহাদেশে অনেক সময়ই ব্যক্তিগত রেকর্ডকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হত। কিন্তু খোওয়াজা যে বাস্তবেই মনের দিক থেকেও এখন ব্যাগি গ্রিন, অজি ওয়ে-র ফিলজফিকে আওড়ে সেটাই প্রমাণ করে দিলেন। নাকি মনে থেকে গেল দুঃখ?

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।