রাজ্যে আরও ১৫ জেলায় আসছে কেন্দ্রীয় দল, নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

Advertisement

চোরেদের চিহ্নিত করতে আগামী সপ্তাহে আরও ১৫টি জেলা কেন্দ্রীয় দল আসবে। নন্দীগ্রামে ‘শহিদ স্মরণ’-এর মঞ্চ থেকে এমনই দাবি করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। একই সঙ্গে পাকাবাড়ির মালিকরা আবাস যোজনায় ঘর পেয়ে থাকলে নাম প্রত্যাহার করতে পরামর্শ দেন তিনি।

শনিবার সকাল ৮টা নাগাদ নন্দীগ্রামে ভাঙাবেড়ায় ‘শহিদ বেদী’তে মালা দেন শুভেন্দু অধিকারী। এর পর বক্তব্য রাখতে উঠে তিনি বলেন, মালদা, পূর্ব মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল এসেছে আমার নালিশে। আগামী সপ্তাহে রাজ্যের আরও ১৫টি জেলায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল আসবে। অঞ্চল, ব্লক, গ্রাম পঞ্চায়েতে চোরেদের চিহ্নিত না করতে পারলে আমার নাম শুভেন্দু অধিকারী নয়।

আবাস যোজনার কাজ খতিয়ে দেখতে বৃহস্পতিবার রাজ্যে আসে ৬ সদস্যের দল। ২ ভাগে ভাগ হয়ে তাঁরা চলে যান পূর্ব মেদিনীপুর ও মালদায়। কেন্দ্রীয় দল পাঠানোর বিরোধিতা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ক্ষমতায় থাকলে যা খুশি তাই করা যায় না। ওদিকে সমীক্ষায় বেরিয়ে বৃহস্পতিবারই পূর্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুরে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে পড়ে প্রতিনিদল। ১০০ দিনের কাজের টাকার দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন স্থানীয়রা।

ইতিমধ্যে ২ জেলাতেই একাধিক বেনিয়ম কেন্দ্রীয় দলের চোখে এসেছে বলে সূত্রের খবর। এবার ১৫টি জেলায় কেন্দ্রীয় দল অনুসন্ধান শুরু করলে আবাস দুর্নীতির আসল ছবিটা সামনে চলে আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।