ক্যানসার আক্রান্ত ‘মহীনের ঘোড়াগুলি’র বাপিদা, চিকিৎসার ভার নিল রাজ্য সরকার

Advertisement

Mohiner Ghoraguli, Tapas Das, জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো:  ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত মহীনের ঘোড়াগুলি ব্যান্ডের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা তাপস দাস। সালটা ১৯৭৫, বাংলায় তৈরি হল প্রথম রক ব্যান্ড মহীনের ঘোড়াগুলি, বাকিটা ইতিহাস। দীর্ঘ ৪৭ বছর পরও একইরকম জনপ্রিয় তাঁদের গান। তবে এক এক করে চলে গেছেন মহীনের ঘোড়াগুলির প্রতিষ্ঠাতারা। এবার মৃত্যুমুখে অন্যতম শেষ ঘোড়া তাপস দাস। যাঁকে গানের দুনিয়া বাপিদা নামেই চেনেন। লাং ক্যানসারের থার্ড স্টেজে তিনি, চলছে কেমো। চিকিৎসার খরচ যোগান দিতে নাজেহাল পরিবার। প্রিয় বাপিদার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সাহায্য প্রার্থণা করেছিলেন সিধু, গৌরব চট্টোপাধ্যায়, অর্ক মুখোপাধ্যায়  ও রূপম ইসলাম সহ আরও অনেকে। এবার রূপম নিজেই জানালেন যে, বাপিদার চিকিৎসাভার কাঁধে তুলে নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তত্ত্বাবধানে গত ৩ জানুয়ারি এসএসকেএমে ভর্তি হন তিনি।

আরও পড়ুন- Shah Rukh Khan| Anjali Singh: দিল্লি দুর্ঘটনায় মৃত অঞ্জলি সিং-এর মা অসুস্থ, পাশে দাঁড়ালেন শাহরুখ…

শুক্রবার একটি পোস্টে বাপিদার সঙ্গে দুটি ছবি পোস্ট করে রূপম ইসলাম লেখেন, ‘গত ১ জানুয়ারি আমি একটি পোস্ট করেছিলাম বাপীদা-র অসুস্থতার ব্যাপারে, যেখানে লিখেছিলাম যে কোনও রাজনৈতিক দলের সাহায্য তিনি নেবেন না। একমাত্র সরকারের সাহায্য গ্রহণ করতে তাঁর আপত্তি থাকবে না, কারণ পশ্চিমবঙ্গ সরকার কোনও একটি রাজনৈতিক দল নয়। সেই পোস্ট দেখে ঠিক তার পরদিনই পশ্চিমবঙ্গ সরকার এগিয়ে এসেছেন, এবং বাপীদা-র চিকিৎসার সম্পূর্ণ দায়িত্ব তাঁরা নিয়েছেন। এ জন্য তাঁরা আমার কৃতজ্ঞতাভাজন হলেন।পাশাপাশি আমরা, বাংলার শিল্পী সম্প্রদায় আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী যে এগিয়ে আসতে পেরেছি, সে জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানালাম। আপাতত বাপীদা-র চিকিৎসা চলছে এসএসকেএম হসপিটালে। গত ৩ তারিখ উনি এসএসকেএমে ভর্তি হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তত্ত্বাবধানে। ওখানেই ওঁর চিকিৎসা চলছে। আমি আজ দেখা করলাম ওঁর এবং সুতপাদির সঙ্গে। অনেকটা আড্ডা হল।’

রূপম একা নন, বাপিদার সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন বাংলা ব্যান্ডগুলি। মহীনের ঘোড়াগুলি ব্যান্ডের পথিকৃৎ গৌতম চট্টোপাধ্যায়ের পুত্র গৌরব চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘খুবই কঠিন পরিস্থিতি। কারোর উপর কোনও বাধ্যবাধকতা নেই, সবাইকে বলব যে যেভাবে পারবেন যদি সাহায্য করেন, খুব ভালো হয়। চিকিৎসা তো চলছে। মায়ের সঙ্গে সুতপা কাকিমার কথা হয়েছে। স্পিরিটের কোনও অভাব নেই। এত অসুস্থতার মাঝে বাংলা সংগীত মেলায় গিয়ে পারফর্ম করে এসেছেন।’ ক্যাকটাসের অন্যতম সদস্য সিধু বাংলা গানের অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘বাংলা ব্যান্ড যারা ভালোবাসো, বাংলা ব্যান্ডের গান শুনতে ভালোবাসো তাদের কাছে ‘মহীনের ঘোড়াগুলি’-র পরিচয় আলাদা করে কিছু বলার নেই। আমাদের যাপনের ওতপ্রোত সঙ্গী মহীনের ঘোড়াগুলি-র অন্যতম পথিকৃৎ তাপসদা বিগত কয়েকমাস যাবৎ দুরারোগ্য ক্যান্সারে ভুগছেন। তাঁর চিকিৎসা স্বার্থে প্রয়োজন আর্থিক সাহায্য। সবার কাছে আমাদের বিনম্র অনুরোধ, এসো এই অসময়ে তাপসদা’র পাশে সবাই দাঁড়াই সাধ্যমতো! আমাদের সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টা এবং ভালোবাসায় তাপসদা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন, এটাই বিশ্বাস!’ 

আরও পড়ুন- Sabyasachi Chowdhury: একেবারে অন্য লুকে সেটে ফিরলেন সব্যসাচী, ঐন্দ্রিলার মা লিখলেন…

সঙ্গীত শিল্পী অর্ক মুখোপাধ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, ‘যাদের গান “সুদিন কাছে এসো ভালোবাসি একসাথে সবকিছুই” তাদেরই বাপিদা আজ অসুস্থ। লাং ক্যান্সার থার্ড স্টেজ, খেতে পারছেন না স্বাভাবিক পদ্ধতিতে। বেশ কিছু কেমো নিয়েছেন। এখন রেডিয়েশন নেবার মতন অবস্থায় নেই। খেতে পারছেন না স্বাভাবিক ভাবে। ওজন কমে পয়ত্রিশ কিলোয় নেমে এসেছে। আমরা বন্ধুরা একটি অনলাইন ফান্ড্রেসার অর্গানাইস করবো দ্রুতোই এক সপ্তাহের মধ্যে। বাজে ভনীতা করে আর পলিটিকাল/এপলিটিকাল কুৎসিত ট্রোলবাজি না করে যদি পারেন আমার আপনার সামান্য ছোট ছোট কান্ট্রিবিউশন পাঠাতে শুরু করুন। খরচ অনেক। ঐ যে গানটা আপনাকে রাতে দিনে ভাবিয়েছে, তার ও মূল্য অনেক। সে কথা ভেবে এগিয়ে আসুন। অন্য কেউ কী করেছে না করেছে তার জন্য না ভেবে। যদি সত্যিই কোনোদিন ভেবে থাকেন “কোথায় রয়েছে ভাবি লুকিয়ে বিষাদ তবুও”, তবে মনে রাখবেন একটু একটু করে হলেও এই মানুষটিকে বাঁচানোর দায় আমাদেরও আছে।’

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।