Prince Harry: ব্রিটেনের রাজপরিবার নিয়ে বোমা ফাটাতে চলেছেন প্রিন্স হ্যারি? নজরে ১০ জানুয়ারি

Advertisement

‘নেটফ্লিক্স’ এর সিরিজে ব্রিটিশ রাজ পরিবার নিয়ে ঝড় তুলে দিয়েছেন প্রিন্স হ্যারি। রাজ পরিবারের অন্দরের একাধিক ঘটনা তুলে ধরে নতুন করে রাজা চার্লস ও প্রিন্স উইলিয়ামদের বিরাগভাজন হন প্রিন্স হ্যারি। তবে এবার খবর, ‘নেটফ্লিক্স’ এর সিরিজে প্রিন্স হ্যারি যা তুলে ধরেছেন, তার দ্বিগুণ বিস্ফোরক তথ্য এবার উঠে আসছে প্রিন্স হ্যারির লেখা আত্মকথা ‘স্পেয়ার’-এ। ১০ জানুয়ারি তা মুক্তি পেতে চলেছে। 

চিরকালই দাদা প্রিন্স উইলিয়ামের ছায়ায় থাকতে হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে এসেছে প্রিন্স হ্যারির কণ্ঠে। এরপর নিজের লেখা বইতে প্রিন্স উইলিয়ামের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে আরও বিস্তারিত জানাতে চলেছেন প্রিন্স হ্যারি। নেটফ্লিক্সের তথ্য চিত্রের সিরিজে প্রিন্স হ্যারি অভিযোগ তুলে ছিলেন যে, তাঁর বিরুদ্ধে তাঁর দাদা প্রিন্স উইলিয়াম চিৎকার চেঁচামিচি করেন। এদিকে হ্যারির স্ত্রী মেগানের বক্তব্য ছিল, রাজপরিবারের সদস্যরা সকলেই ভীষণভাবে ‘মেকি’। তাঁরা সকলের আড়ালেও ভীষণভাবে ‘ফরমাল’ বলে আখ্যা দেন মেগান। প্রিন্স হ্যারি ও তাঁর স্ত্রী মেগানের ব্যখ্যায় ব্রিটেনের রাজ পরিবারের এমন এক ছবি আঁকা হয়, যেখানে সদস্যদের অযত্নবান ও শুনেও না শোনার ভান করা হিসাবে তুলে ধরা হয়। এতো ছিল নেটফ্লিক্সে তুলে ধরা হ্যারির বক্তব্য। এরপর ডায়না-পুত্র হ্যারি তাঁর লেখা বইতে ঠিক কী তুলে ধরতে চলেছেন, তা নিয়ে বিস্তর জল্পনা রয়ে যাচ্ছে। 

এযাবৎকালে ব্রিটিশ রাজ পরিবারে সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ঘটনা ছিল প্রিন্সেস ডায়ানার অকাল মৃত্যু। তাঁর মৃত্যুর পর রাজা তৃতীয় চার্লসের সঙ্গে ক্যামেলিয়া পার্কারের বিয়ে। এই গোটা বিতর্কের বহু বছর পর রাজ পরিবারের অন্দরমহল নিয়ে মুখ খুলেছেন প্রিন্স হ্যারি। তবে হ্যারির লেখা বইতে প্রিন্সেস ডায়ানা নন, বরং বেশি করে জায়গা করতে চলেছে প্রিন্স হ্যারির সঙ্গে প্রিন্স উইলিয়ামের মতভেদের বিষয়টি। উইলিয়ামের ছত্রছায়ায় হ্যারিকে যে তিরকালই ‘দ্বিতীয়’ হয়ে থাকতে হয়েছে, তা নিয়ে হ্যারির মেনর তিক্ততাই বইতে জায়গা দখল করতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। 

 

 

 

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।