CV Ananda Bose: উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী উপাচার্য কে?‌ অভিনব উদ্যোগ নিলেন রাজ্যপাল‌

Advertisement

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে অভিনব উদ্যোগ নিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। যদিও সার্চ কমিটি তিনটি নাম উল্লেখ করেছিল। ‌এবার উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী উপাচার্য নিয়োগের জন্য সার্চ কমিটির তৈরি তালিকার তিনজনের সঙ্গেই সরাসরি কথা বলতে চেয়েছেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। নিয়ম অনুযায়ী, এই সার্চ কমিটি থেকে উপাচার্য বেছে নেন রাজ্যপাল। এবার ব্যতিক্রম পদক্ষেপ হিসাবে কথা বলতে চেয়েছেন রাজ্যপাল। আগে যদিও এই কথা বলার নজির নেই। তবে সরাসরি কথা বলার বিষয়ে উচ্চশিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে কোনও আপত্তি করা হয়নি।

এদিকে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস রাজ্যের সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্যদের নিয়ে একটি বৈঠক ডেকেছেন। সূত্রের খবর, আগামী ১৭ জানুয়ারি ওই বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষাসচিবেরও থাকার কথা রয়েছে। ঠিক তার পরের দিন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বাছাই নিয়ে সার্চ কমিটি যে তিনজনের নাম সুপারিশ করেছে, তাঁদের সঙ্গে ১৮ জানুয়ারি কথা বলবেন রাজ্যপাল। তার পরেই তিনি উপাচার্য হিসেবে এক জনকে বেছে নেবেন।

অন্যদিকে স্কুলে নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্য। এখন সিবিআই বিষয়টির তদন্ত করছে। তাই তাঁকে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তখন থেকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থায়ী উপাচার্য নেই। আর সুবীরেশ গ্রেফতার হওয়ার পরে ওমপ্রকাশ মিশ্রকে সেখানে অস্থায়ী উপাচার্য করা হয়েছিল। তবে তাঁকে আরও চার সপ্তাহ কাজ চালানোরও নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যপাল। তার মধ্যে তিনি ঠিক করে নেবেন স্থায়ী উপাচার্য।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ জগদীপ ধনখড়ের সময় সার্চ কমিটির তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে রাজ্যপালের সরাসরি কথা বলা হতো না। এই নিয়ে বিরোধ চরমে উঠেছিল। এমনকী উপাচার্যরা সরাসরি জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তখন বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে মুখ্যমন্ত্রীকে আচার্য পদে আনার বিল বিধানসভায় পাশ করিয়ে নেয় তৃণমূল কংগ্রেস। যদিও বিলটি এখনও আইনে পরিণত হয়নি। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়েও স্থায়ী উপাচার্য নেই।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।