Ranji Trophy: নিজের নামাঙ্কিত মাঠে রঞ্জি খেলতে নামছেন অভিমন্যু, আবেগ ঝরে পড়ল গলায়

Advertisement

ক্রিকেটের প্রতি অগাধ ভালোবাসা। তাই ছেলেকে ক্রিকেটার বানানোর স্বপ্ন দেখতেন শুরু থেকেই। ২০০৫ সালে সেকারণেই দেরাদুনে বড়সড় একটা জমি কিনে নিজের টাকায় গড়ে ফেলেন এমন এক ক্রিকেট মাঠ, যেখানে ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ আয়োজন করা যাবে। রঙ্গনাথন পরমেশ্বরন ঈশ্বরনের সেই সাধনা সার্থক হচ্ছে মঙ্গলবার, যেদিন ছেলে অভিমন্যু ঈশ্বরন ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলতে নামছেন সেই মাঠেই।

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, দেরাদুনের যে মাঠে উত্তরাখণ্ডের মুখোমুখি হবে বাংলা, সেটির নাম অভিমন্যু ক্রিকেট অ্যাকাডেমি গ্রাউন্ড। অর্থাৎ, নিজের নামাঙ্কিত মাঠে বাংলার হয়ে রঞ্জি খেলতে নামবেন অভিমন্যু ঈশ্বরন।

ছেলেবেলা থেকে যে মাঠে ক্রিকেট খেলে বড় হয়েছেন, সেখানে ফিরতে পারলে সবারই ভালো লাগে। অভিমন্যু ঈশ্বরনও ব্যতিক্রমী নন। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ছেলেবেলা থেকে যেখানে ক্রিকেট খেলা শিখেছি, সেখানে রঞ্জি ম্যাচ খেলতে পারা আমার জন্য গর্বের বিষয়। এটা বাবার ভালোবাসা ও প্ররিশ্রমের ফসল। বাড়ি ফিরতে পারলে সবসময় ভালো লাগে। তবে একবার মাঠে নামলে বাংলার হয়ে ম্যাচ জেতাই একমাত্র লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায়।’

আরও পড়ুন:- আউট নাকি নট-আউট? নেসারের ক্যাচ নিয়ে নিয়ম স্পষ্ট করল MCC, যদিও শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক

সচারাচর কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা খেলা ছাড়ার পরে কোনও স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয়ে থাকে তাঁদের নামে। তবে কোনও আনক্যাপড ক্রিকেটারের নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ খুব একটা দেখা যায় না। তার উপর মালিকের ছেলে সেই স্টেডিয়ামে ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলতে নামছেন, এমন নজিরও খুঁজে পাওয়া মুশকিল। যদিও সিনিয়র ঈশ্বরন স্পষ্ট জানালেন যে, তিনি এই স্টেডিয়াম তৈরি করেছেন শুধু ছেলের জন্য নয়। বরং ক্রিকেটের প্রতি নিজের আবেগের জন্য। যে কারণে, অভিমন্যু জন্মানোর আগে থেকে তিনি ক্রিকেট অ্যাকাডেমি চালিয়ে যান।

আরও পড়ুন:- PAK vs NZ: টানা দু’টি ক্যালেন্ডার বর্ষে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করার বিরল নজির কনওয়ের

আরপি ঈশ্বরন বলেন, ‘ছেলে এই মাঠে খেলতে নামছে, এটা তৃপ্তির বিষয়। তবে সেটা কোনও প্রাপ্তি নয়। প্রাপ্তি হবে সেটাই, যদি ছেলে দেশের হয়ে ১০০ টেস্ট খেলতে পারে। আমি এই স্টেডিয়াম তৈরি করেছি ক্রিকেটের প্রতি আবেগের জন্য, ছেলের জন্য নয়। ২০০৬ সালে এটা তৈরি করা শুরু করি। আজ পর্যন্ত পরিকাঠামো উন্নত করার জন্য নিজের পয়সা খরচ করে চলেছি। পালটা কিছু পাওয়ার আশায় নয়। নিছক খেলাটার প্রতি ভালোবাসার জন্য।’

উল্লেখ্য, সময়ে সময়ে দেরাদুনের এই মাঠে অনুশীলন করেছেন মহম্মদ শামি, শ্রেয়স আইয়ার, দীনেশ কার্তিকের মতো টিম ইন্ডিয়ার প্রথমসারির ক্রিকেটাররা।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।