Kajol reveals which secret: শাশুড়ি-বউমা একসঙ্গে মাছ খান, সংসার জীবনের কোন কথা বলে দিলেন কাজল

Advertisement

অজয় দেবগনকে বিয়ে করার পর কাজল সারাদিন পরোটা খেতেন? হ্যাঁ, তেমনটাই জানালেন অভিনেত্রী। শুধু তাই নয়, তিনিই নাকি তাঁর শ্বশুরবাড়িতে মাছ খাওয়ার চল শুরু করেন। বর্তমানে অভিনেত্রীকে তাঁর আগামী ছবি সালাম ভেঙ্কির প্রচারে দেখা যাচ্ছে কলকাতাতেও এসেছিলেন তিনি এই ছবির প্রচারে। আর ছবির প্রচারে গিয়েই তিনি তাঁর খাবার অভ্যাস সম্পর্কে জানালেন। কী ভালোবাসেন, কী খান, ইত্যাদি।

১৯৯৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি অজয় দেবগনের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন কাজল। তাঁদের বিয়েটা অত্যন্ত সাধারণভাবে বাড়ির ছাদে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। অভিনেত্রীর শাশুড়ি, বীণা দেবগনের সঙ্গে এখনও তাঁর বড়ই মধুর সম্পর্ক।

সিদ্ধার্থ আলম্ব্যানকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানান তিনি পরোটা খেতে ভীষণই ভালোবাসেন। অজয় দেবগনকে বিয় করার পর নাকি তিনি টানা কিছুদিন কেবল পরোটাই খেয়েছিলেন! তাঁর কথায়, ‘বিয়ের দুই মাসের মধ্যে আমার ৮ কেজি ওজন বেড়ে গিয়েছিল। প্রত্যেকদিন সকালে আমাদের খাবার টেবিলে আলাদা আলাদা ধরনের পরোটা থাকত। কখনও ফুলকপির পরোটা, কখনও মুলোর পরোটা, কখনও পনির পরোটা তো কখনও আলুর পরোটা। আমি তাতে সাদা মাখন লাগিয়ে খেতাম।’ তিনি আরও জানান, ‘ওই সময় ডায়েট কাকে বলে আমি স্রেফ ভুলে গিয়েছিলাম। ডায়েটিং এর ডি-ও মনে ছিল না আমার।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন বাড়িতে আমি আর আমার শাশুড়ি দুজনে একসঙ্গে বসে মাছ খাই। মাসে একবার কাঁকড়া তো খাই-ই খাই।’ অভিনেত্রী বলেন তিনি নিজেই কাঁকড়া ছাড়িয়ে খান। তিনি দর্শকদের উপদেশ দিয়েছেন কাঁকড়া ছাড়িয়ে খাওয়ার সময় তাঁরা যেন কালো পোশাক এবং সানগ্লাস পরেন। কোনও মেকআপ ছাড়াই এই কাজ করতে হবে বলেও তিনি জানান।

কাজল বলেন তিনি হাত দিয়ে খেতে ভীষণ ভালোবাসেন। তাঁর কথায়, ‘হাত দিয়ে খাবার খেলে খাবারের স্বাদটাই বদলে যায়। এমনই খেলে তো কোনও স্বাদ পাওয়া যায় না তেমন।’

সালাম ভেঙ্কি ছবিতে কাজলকে বিশাল জেঠওয়ার মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে। অসুস্থ ছেলের জন্য তিনি কী কী করতে পারেন সবটাই এই ছবিতে ফুটে উঠেন। রেবতী মেনন পরিচালিত এই ছবিটি আগামী ৯ ডিসেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।