Transgender Couple: মন্দিরে সমলিঙ্গের ব্যক্তিত্বের বিয়ে ঘিরে জটিলতা! শেষে কীভাবে সাত পাকে বাঁধা পড়লেন তাঁরা?

Advertisement

সমলিঙ্গের এক জুটির বিয়ে ঘিরে কেরলে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। কেরলের পালাক্কাডের এক মন্দিরে এই বিয়ে হতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। এই ঘটনা ঘিরে রীতিমতো শোরগোল শুরু হয়েছে। মন্দির চত্বরের মধ্যে এই বিয়ে সংগঠিত হওয়া নিয়ে শুরু হয় চাঞ্চল্য।

বৃহস্পতিবার কেরলের ওই মন্দিরে নিলান কৃষ্ণাণ ও অদ্বৈকার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। তবে সেই বিয়ে কেরলের মন্দির কর্তৃপক্ষ দেয়নি অনুমতি। মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই বিয়ে তীর্থস্থানে হতে পারেনি, কারণ দুই ব্যক্তিত্বের আধার কার্ডে ছিল সমস্যা। মূল সমস্যা শুরু হয়, আধার কার্ডে দুই ব্যক্তিত্বের পরিচিতি ঘিরে। আধার কার্ডে লেখা রয়েছে যে, দুই ব্যক্তিত্বই পুরুষ। আর এই পরিচিতিই তাঁদের বিয়ের ক্ষেত্রে বাধ সাধে। যেখানে দুই ব্যক্তিত্ব পুরুষ হিসাবে রয়েছেন, অথচ বাস্তবে পরিচিতি আলাদা, সেই নিরিখে এই বিয়ের পর্ব সম্পন্ন করা হয়নি কেরলের ওই মন্দিরে। বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক হয়ে যাওয়ার পরও এমন ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ায়। জানা গিয়েছে, শেষকালে দম্পতির বন্ধুরা গিয়ে স্থানীয় একটি হল-এ বিয়ের আয়োজন করেন। সেখানে পুরোহিতকে ডেকে এনে সম্পন্ন করা হয় বিয়ে। সেখানে সমস্ত ঐতিহ্য মেনে সম্পন্ন হয় বিয়ের পর্ব।

এদিকে, ওই ব্যক্তিত্বরা সমলিঙ্গ বলেই এই বিয়ে হতে দেওয়া হয়নি, এমন অভিযোগকে নস্যাৎ করেছে মন্দির কর্তৃপক্ষ। মন্দির কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা কোনও অনুমতি দেয়নি এমন কথা ঠিক নয়। তাঁরা ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন উইং ও মন্দিরের বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টির মীমাংসা করতে বলেছিলেন। মন্দির কর্তৃপক্ষ বলছে, এমন কোনও ধরনের বিয়ে মন্দিরে সম্পন্ন হয়নি এপর্যন্ত, তবে হবে না এমনটাও নয়। শুধু নথি ঘিরে বিষয়টি স্পষ্ট হওয়া প্রয়োজন ছিল।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।