শুক্রবার বিকেলে সোনামুখীর নিত্যানন্দপুর ফুটবল মাঠে দলীয় কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে শুরুতেই ঠিক এই ভাষাতেই বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন ‘মহা গুরু’ মিঠুন চক্রবর্ত্তী।

Advertisement

Purulia Bankura

oi-Kousik Sinha

  • |
Google Oneindia Bengali News

‘সৌমিত্রকে অনেক দিন ধরেই চিনি, ও বাঘের বাচ্ছা’। শুক্রবার বিকেলে সোনামুখীর নিত্যানন্দপুর ফুটবল মাঠে দলীয় কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে শুরুতেই ঠিক এই ভাষাতেই বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন ‘মহা গুরু’ মিঠুন চক্রবর্ত্তী।

বাংলার মানুষের সামনে পরিচয় ঘটালেন মহাগুরু মিঠুন

বিজেপির জাতীয় কর্মসমিতির অন্যতম সদস্য মিঠুন চক্রবর্ত্তী এবারের বঙ্গ সফরে এসে নিজে বলার চেয়ে মানুষের কথা শুনছেন বেশী। সোনামুখীর নিত্যানন্দপুরেও তার ব্যতিক্রম হল না। ওই এলাকার মানুষের অভাব-অভিযোগের কথা মন দিয়ে শুনলেন, সমাধানের উপায়ও বাৎলে দিলেন। তবে এদিনের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় অসুস্থ এক শিশুর মায়ের আবেদনে সাড়া দিয়ে তিনি তার চিকিৎসার সমস্ত ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিলেন।

আজ শুক্রবারের সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ‘জেলবন্দি’ অনুব্রত মণ্ডলকে ‘পাঁঠা’ বলে সম্বোধন করেন। একই সঙ্গে নিত্যানন্দপুরের তাঁদের জমায়েতের বোলপুরে বেশী লোকের সভা করার চ্যালেঞ্জ তৃণমূলকে ছুঁড়ে দেন তিনি।

একই সঙ্গে তৃণমূল কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের বৌ-য়েদের পাঁচশো টাকা দিয়ে ওই দলের নেতাদেরবান্ধবীদের বাড়িতে কোটি কোটি টাকা। রাজ্যে বেকারের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান। বিজেপি ক্ষমতায় এলে শিল্প হবে, হবে কর্মসংস্থান। সঙ্গে সুষ্ঠ নিয়োগ প্রক্রিয়া জারি থাকবে বলেও তিনি দাবি করেন।

অন্যদিকে এদিন সুকান্ত মজুমদার দাবি করেন, ‘দিদি এই রাজ্যটাকে মাতালের রাজ্যে পরিনত করতে চলেছেন’। ‘ঢুক ঢুক পিও-যুগ যুগ জিও’, তাই মদ আমাদের ভবিষ্যৎ, মাতাল আমাদের বর্তমান’। তাই পেট্রোল-ডিজেলের দাম না কমিয়ে মদের দাম রাজ্য সরকার কমাচ্ছে বলেও তিনি দাবি করেন। এদিনের এই সভায় মিঠুন চক্রবর্ত্তী, সুকান্ত মজুমদার ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাঁকুড়ার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ডাঃ সুভাষ সরকার, বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ, দলের বিধায়ক, পদাধিকারী সহ অন্যান্যরা।

বলে রাখা প্রয়োজন, গত কয়েকদিন আগে বীরভুমে দাঁড়িয়ে অনুব্রত মণ্ডলকে বাঘ বলে সম্বোধন করে ছিলেন ফিরহাদ হাকিম। এমনকি তাঁকে জোর করে খাঁচায় বন্ধ করে রাখা হয়েছে বলেও বিরোধীদের আক্রমণ শানান তিনি। তবে অনুব্রত মণ্ডল বের হলে অন্যরা খাঁচায় ঢুকে যাবে বলে মন্তব্য করেছিলেন। এবার বিজেপির বাঘ হিসাবে সৌমিত্র খাঁ’কে বাংলার মানুষের কাছে পরিচয় করালেন মিঠুন চক্রবর্তী।

যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ’য়ের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে গত কয়েকদিন আগে সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে মুখ খুলে বোমা ফাটিয়েছিলেন এই সাংসদ।

English summary

Mithun Chakraborty claims he knows Saumitra Khan very well, praises BJP MP

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।