Kanpur: ছানি কাটাতে গিয়ে দৃষ্টিশক্তি হারালেন ৮জন, চলছে তদন্ত

Advertisement

হায়দার নকভি

উত্তরপ্রদেশের কানপুরে ফের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ছানি অপারেশন করতে গিয়ে দৃষ্টি হারালেন আটজন। আরাধ্যা হাসপাতালের ছানি অপারেশন করতে গিয়ে চরম গাফিলতির অভিযোগ। বৃহস্পতিবার ক্ষতিগ্রস্ত রোগীরা তদন্তকারী প্যানেলের সামনে হাজির হয়েছিলেন।

কানপুরের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক এই প্যানেলের মাথায় রয়েছেন। সেই প্যানেলের সামনে উপস্থিত হয়ে রমেশ প্রজাপতি নামে এক রোগী জানিয়েছেন, আমাদের কাছ থেকে ১৫০০ টাকা করে নেওয়া হয়েছিল। এরপর ছানি অপারেশন করা হয়েছিল। অপারেশনের পরেই আমাদের দৃষ্টিশক্তি চলে গেল। আমি হাসপাতালে গিয়েছিলাম। কিন্তু ওরা কিছু করল না।

অপর এক রোগী শের সিং জানিয়েছেন, অপারেশনের পরে আমার প্রচন্ড মাথাযন্ত্রণা হচ্ছিল। চোখের মধ্যে কেমন যেন পুড়ে যাওয়ার মতো অনুভূতি হচ্ছিল। দুটো চোখেই যন্ত্রণা। তারপর আর চোখে দেখতে পাচ্ছি না। হাসপাতাল যা বলল সবটা করলাম। তারপরেও দৃষ্টি চলে গেল।

এদিকে প্যানেলের তরফে তদন্তে দেখা গিয়েছে, অপারেশনের আগে রক্ত চাপ, রক্ত পরীক্ষা এসব কিছুই করা হয়নি। এদিকে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডঃ পারভেজ খান ও ডঃ শালিনী মোহন এই অপারেশন করেছিলেন। তাঁরা জানিয়েছেন ৫১জনের অপারেশন হয়েছিল। তার মধ্যে ৮জনের ইনফেকশন হয়েছে। আমরা বার বার বলেছিলাম কাপড়ের টুকরো চোখে রাখতে। তারা তা করেননি।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।