৫০ ওভারে ৫০০ রান তামিলনাড়ুর! বিজয় হাজারের ফর্ম্যাট নিয়েই প্রশ্ন দীনেশ কার্তিকের

Advertisement

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি বিজয় হাজারে ট্রফিতে সোমবার ঘটে গিয়েছে এক অবিশ্বাস্য ঘটনা। এ দিন মুখোমুখি হয়েছিল তামিলনাড়ু এবং অরুনাচল প্রদেশ। সেই ম্যাচেই একাধিক নজির গড়েছেন তামিলনাড়ুর ক্রিকেটাররা। পাশাপাশি লজ্জার নজিরে ডুবতে হয়েছে অরুনাচল প্রদেশকে। ৫০ ওভারে ৫০৬ রান করে এদিন তামিলনাড়ু। আর এর পরেই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন ভারতের উইকেট রক্ষক ব্যাটার দীনেশ কার্তিক। চলতি বিজয় হাজারে ট্রফির ফর্ম্যাট নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন… Senegal vs Netherlands: শেষে গিয়ে জ্বলে উঠল নেদারল্যান্ডস, সেনেগালকে হারাল ২-০ গোলে

তামিলনাড়ুর নিয়মিত অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক এবার বিজয় হাজারেতে খেলছেন না। উল্লেখ্য সদ্য টি-২০ বিশ্বকাপে তিনি ভারতীয় দলের হয়ে খেলেছেন। তিনি জগদিশানকে বিশ্বরেকর্ড করার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। পাশাপাশি এটাও প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন এই ফর্ম্যাট কি আদৌও সঠিক? তাঁর বক্তব্য উত্তর পূর্বাঞ্চলের একটি দলকে লিগ পর্যায়ে এমন করে হঠাৎ করে একটি এলিট দলের বিরুদ্ধে ফেলে দেওয়া কি ঠিক? তিনি অবশ্য এর পিছনে যুক্তিও দেখিয়েছেন। তাঁর মতে এই রকম ম‌্যাচের ফলে রান রেটে বিরাট পার্থক্য হয়ে যায়। আর অন্যদিকে যদি কোন ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যায় তাহলে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে অন্য বড় দল।

আরও পড়ুন… টি-২০’র জন্য ইয়র্কার ও স্লোয়ার নিয়ে কাজ করছি: উমরান মালিক

দীনেশ কার্তিক লিখেছেন, ‘বিশ্বরেকর্ড! কি অসাধারণ পারফরম্যান্স জগদিশান। তোমার জন্য আমি খুব খুশি। বড় কিছু অপেক্ষা করছে। সাই সুদর্শন কি অসাধারণ টুর্নামেন্ট যাচ্ছে তোমার। দারুণ খেলেছে ছেলেরা।’ তিনি আরো যোগ করেন ‘ অপরদিকে আমি আরো একটা বিষয় বলব। লিগ পর্যায়ে এলিট দলের বিরুদ্ধে উত্তর পূর্বাঞ্চলের দলকে খেলানো কতটা যুক্তিযুক্ত? এটা দলগুলোর রান রেটে প্রভাব ফেলে। ভাবুন তো এই দুই দলের মধ্যে কারো একটা ম্যাচ যদি বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়! একটা আলাদা গ্রুপ কি করা যেত না? সেখান‌ থেকে কোয়ালিফাই করত।’

প্রসঙ্গত তামিলনাড়ুর দুই ওপেনার ওপেনিং জুটিতে করে ৪৪৯ রান। ওপেনার ওপেনার নারায়ণ জগদিশান করেছেন ২৭১ রান। মাত্র ১৪১ বলে এই অবিশ্বাস্য ইনিংস খেলেছেন তিনি। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছেন সাই সুদর্শন। তিনি ১০২ বলে করেছেন ১৫৪ রান। জগদিশান তো আবার বিশ্বরেকর্ড ও করে ফেলেছেন। ২০১৫ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারা পরপর চার ম্যাচে করেছিলেন শতরান। আজ শতরান করে সেই নজির ভেঙে দিলেন জগদিশান।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।