Aindrila Sharma: ‘মেরে ফেলো না…আরেকটু থাকতে দাও ওকে’, ঐন্দ্রিলার মৃত্যুগুজবে কাতর আর্তি সব্যসাচী-সৌরভের

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: লড়ছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। জীবনে ফেরার লড়াই লড়ছেন ২৪ বছরের অভিনেতা। ক্যানসার। ব্রেন স্ট্রোক। কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে সবকিছুর সাথে লড়ছেন ‘ফাইটার’ ঐন্দ্রিলা। তাঁর সঙ্গেই লড়ছেন অভিনেতার চিকিৎসক থেকে পরিবার-প্রিয়জনেরা। মাটি আঁকড়ে, দাঁত কামড়ে লড়ছেন ওরা প্রত্যেকে। এই লড়াই হাল না ছাড়ার। হেরে না যাওয়ার। আর তাই এমন কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে বুধবার রাতে যখন আচমকা ঐন্দ্রিলার মৃত্যুগুজবে ভরে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ, তখন জবাব দিতে সেই মাধ্যমকেই বেছে নিলেন ঐন্দ্রিলার বিশেষ বন্ধু সব্যসাচী চৌধুরী থেকে আরেক বন্ধু সৌরভ দাসও। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐন্দ্রিলার জীবন ভিক্ষা করে কাতর আর্তি জানালেন অভিনেতার বিশেষ বন্ধু সব্যসাচী চৌধুরী। সব্যসাচী লিখেছেন, ‘আরেকটু থাকতে দাও ওকে… এসব লেখার অনেক সময় পাবে।’ ঐন্দ্রিলার লড়াইতে সবসময় পাশে থেকেছেন, আছেন সব্য়সাচী। দুদিন আগে সোমবার সন্ধ্যাতেই ঐন্দ্রিলার জন্য ‘মিরাকল’ প্রার্থনা করে পোস্ট করেছিলেন তিনি। এর আগে ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ঐন্দ্রিলা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কয়েকদিন পর তিনি লিখেছিলেন, ‘নিজের হাতে করে নিয়ে এসেছি। নিজের হাতে করে ফিরিয়ে নিয়ে যাব। এর অন্যথা হবে না।’ কঠিন পরিস্থিতিতেও মনোবল অটুট রেখেছেন সব্যসাচী। আর যুগলের লড়াইকেও কুর্নিশ জানিয়েছে সবাই। 

অন্যদিকে, যুগলের বন্ধু সৌরভ দাস ঐন্দ্রিলার মৃত্যুগুজবে স্বাভাবিকভাবে ক্ষুব্ধ। ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ঐন্দ্রিলা হাসাপাতালে ভর্তি হওয়ার পর থেকে, সব্যসাচীর সঙ্গে রাত জাগছেন তিনিও। বুধবার রাতে যখন ঐন্দ্রিলার মৃত্যুগুজব ভাইরাল হয়, তখন সৌরভও অভিনেতার জন্য জীবন ভিক্ষা করে পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সৌরভ লেখেন, ‘বেঁচে আছে এখোনো। মেরে ফেলো না ওকে। পায়ে পরছি ॥’ পোস্টের শেষে হাতজোড় করে অনুরোধও জানিয়েছেন অভিনেতা।

শুধু তাই নয়। সোশ্যাল মিডিয়ার এই প্রবণতাকে কড়া ভাষাতেও এদিন দুষলেন তিনি। তাঁর তীব্র কটাক্ষ, ‘নিশ্চিত, ভিডিয়ো বানিয়েও রাখা হয়েছে? আর সেইসব আবেগঘন পোস্ট যে কে কতটা ভালোবাসত তাঁকে? শেষ কবে তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছিল? সোশ্যাল পরজীবী!’

পর পর ২ বার ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধ করে সেই সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা। আবার কাজে ফেরা। লড়াইয়ের অন্যতম নাম ঐন্দ্রিলা। দীপাবলির সন্ধ্যাতেও সেজেগুজে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোকময় ছবি পোস্ট করেছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু তার ১ সপ্তাহের মাথাতেই ফের ছন্দপতন। ১ নভেম্বর রাতে ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন অভিনেতা ঐন্দ্রিলা শর্মা। তাঁর শরীরের একদিক অসাড় হয়ে যায়। ঘন ঘন বমি করতে থাকেন। অচেতন হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে ছোটেন তাঁর পরিবার ও বন্ধু সব্যসাচী চৌধুরী। সেদিন রাতেই অস্ত্রোপচার হয় ঐন্দ্রিলার। তখন থেকেই ভেন্টিলেশনে কোমাচ্ছন্ন অবস্থায় আছেন তিনি। 

আরও পড়ুন, Aindrila Sharma : ‘এত আনন্দ আয়োজন, সবই বৃথা আমায় ছাড়া’, চোখে জল আনল ঐন্দ্রিলার এই নাচ

মাঝে একবার তাঁকে ভেন্টিলেশন থেকে বার করার প্রক্রিয়া শুরু হলেও, শরীরে সংক্রমণ বাড়তেই ফের তাঁকে সি-প্যাপ ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। ফের মস্তিষ্কে নতুন করে জমাট বাধার খবর সামনে আসে। সংক্রমণ বাড়তেই পরিবর্তন করা হয় অ্যান্টিবায়োটিকও। এরইমধ্যে বুধবার সকালে হৃদরোগেও আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। বুধবার সকালে পর পর কয়েকটি কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় ঐন্দ্রিলার। সঙ্গে সঙ্গেই চিকিৎসকরা সিপিআর দেন। সেই সিপিআরে সাড়া দেন অভিনেতা।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।