Adhir Chowdhury: ‘দিদি জাতে মাতাল হলেও তালে ঠিক’, অখিল বিতর্কে মমতাকে নিয়ে মন্তব্য অধীরের

Advertisement

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে নিয়ে মন্তব্য করে সম্প্রতি বিতর্কে জড়িয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল বিধায়ক অখিল গিরি। বিরোধী থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহল থেকে তার এই মন্তব্যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এমনকি তাঁর নিজের দলও তাঁর পাশে দাঁড়ায়নি। মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অখিল গিরির এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে ক্ষমা চেয়েছেন। এ প্রসঙ্গে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে মন্তব্য করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘দিদি জাতে মাতাল হলেও তালে ঠিক।’

আজ বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘তৃণমূল আদিবাসী ভোট যাতে না হারায় তার জন্য অখিল গিরির হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন দিদি। উনি জাতে মাতাল হলেও তালে ঠিক। কবে অখিল গিরি মন্তব্য করেছে আর কবে তিনি ক্ষমা চেয়েছেন তার ব্যবধানটা দেখুন। যখন দেখছেন বাজার গরম, যখন দেখছেন আমাকে জঙ্গলমহল যেতে হবে তখন আদিবাসীদের খুশি করার জন্য তিনি অখিল গিরির হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন।’

অন্যদিকে, রাজ্যে একের পর এক আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের ঘটনা নিয়েও তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেছেন। তিনি বলেন, ‘কার কাছ থেকে অস্ত্র আসছে, কোনও গাড়িতে অস্ত্র আসছে দিদি সব জানেন। তারপরেও দুঃখের বিষয় কেউ ধরা পড়ে না।’ অধীর চৌধুরীর অভিযোগ, আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে এখন থেকে তৃণমূল দল গোলা বারুদ সব মজুদ করছে। তাঁর মন্তব্য, ‘পশ্চিমবঙ্গ আজ বারুদের স্তূপে পরিণত হয়েছে।’ অধীররঞ্জন চৌধুরীর অভিযোগ, এই সমস্ত ঘটনায় ঘটছে তৃণমূল সরকারের আমলে। তৃণমূলের নেতৃত্বে এবং তৃণমূলের প্রশ্রয়ে এই সব ঘটছে। তিনি বলেন, ‘বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বাংলার মানুষকে যতই বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করুক না কেন আজ বাংলার মানুষ তা চিনতে পারছে। বাংলায় প্রশাসন বলে কিছু নেই, শাসক বলে কিছু নেই অরাজকতার চূড়ান্ত সীমায় পৌঁছেছে।’

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।