Aindrila Sharma: ‘কোনওদিন এটা এখানে লিখবো ভাবিনি’, ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে পোস্ট সব্যসাচীর,উদ্বিগ্ন সকলে

Advertisement

হাসপাতালে কেটে গেছে ১৩ দিন। জীবন-মৃত্যুর দোলাচলে ঐন্দ্রিলা, কঠিন লড়াই লড়ছেন ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত অভিনেত্রী। আর এই যুদ্ধে তাঁর প্রতি মুহূর্তের সঙ্গী তাঁর ভালোবাসার মানুষ সব্যসাচী চৌধুরী। গত দু-দিন ধরেই ঐন্দ্রিলার শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে, এমনটাই খবর হাসপাতাল সূত্রে। এর মাঝেই ফেসবুকে অভিনেত্রীকে পোস্ট সব্যসাচীর। 

কী লিখেছেন ঐন্দ্রিলার মনের মানুষ? 

সোমবার সন্ধ্যায় সব্যসাচী ফেসবুকের দেওয়ালে লেখেন- ‘কোনওদিন এটা এখানে লিখবো ভাবিনি, আজ লিখলাম। ঐন্দ্রিলার জন্য মন থেকে প্রার্থনা করুন। মিরাকেলের জন্য প্রার্থনা করুন। অলৌকিক কিছু একটা ঘটনা ঘটুক, প্রার্থনা করুন। সব কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে ও অতিমানবীয় লড়াই লড়ছে। 

সব্যসাচীর এই পোস্ট দেখে ঐন্দ্রিলা অনুরাগীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। কেমন আছেন ঐন্দ্রিলা? হাসপাতাল সূত্রে খবর, অভিনেত্রীর শরীরে জ্বর আর সংক্রমণ দুটোই এখনও কমেনি। আপতত ভেন্টিলেটরে সি-প্যাপ সাপোর্টে রয়েছেন তিনি। এখনও সংকটজনক ঐন্দ্রিলা, বলছেন হাওড়ার সুপারস্পেশ্যালিটি বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা। 

গত বৃহস্পতিবার সংক্রমণের পরিমাণ কমায় অভিনেত্রীর অ্যান্টি বায়োটিকের মাত্রা কমানো হয়েছিল। ওষুধে বেশকিছু হেরফের করা হয়েছিল। ভেন্টিলেশন প্রেসারও বাড়ানো হয়নি। কিন্তু শুক্রবার নতুন করে সংক্রমণ বেড়েছে অভিনেত্রীর শরীরে। 

গত ১লা নভেম্বর দুপুরে বাড়িতেই আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েন ঐন্দ্রিলা। তাঁর মায়ের বক্তব্য অনুয়ায়ী, মিনিট দশেকের মধ্যেই অসাড় হয়ে গিয়েছিল অভিনেত্রীর সারা শরীর। সঙ্গে বমি করছিলেন তিনি। এরপর সব্যসাচীকে ফোন করেন শিখা দেবী (ঐন্দ্রিলার মা)। পরে ঐন্দ্রিলাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা জানান ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত অভিনেত্রী। ওইদিন রাতেই তাঁর অস্ত্রোপচার হয়, তারপর থেকেই ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন ঐন্দ্রিলা।

ঐন্দ্রিলার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন তাঁর অসংখ্য অনুরাগী এবং ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুরা। ক্যানসারকে যেমন হারিয়ে দিয়েছিল ঐন্দ্রিলা, এবার সে পারবে অসাধ্য সাধন করতে, বিশ্বাস রাখছে সকলেই। 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।