Akhil Giri on president Droupadi Murmu: রাষ্ট্রতির রূপ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য অখিল গিরির, সামনে দাঁড়িয়ে শুনলেন কুণাল ঘোষ

Advertisement

বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলার রাজনীতিতে কেউই শালীনতা ধার ধারে না। তবে এবার যেন মাত্রা কয়েকগুণ ছাড়িয়ে গেলেন রাজ্যের মন্ত্রী অখিল গিরি। রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর রূপ নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কের জন্ম দিলেন অধিকারী বিরোধী হিসেবে পরিচিত এই নেতা। শুভেন্দু অধিকারী বা শিশির অধিকারীকে কথায় কথায় আক্রমণ শানান অখিল। তবে এবার রাষ্ট্রপতির রূপ নিয়ে বেলাগাম হলেন তিনি। সেই সময় সেখানেই উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে টুইটও করেছেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য।

বিজেপি নেতা অমিত মালব্যর পোস্ট করা এক ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, অখিল গিরি বলছেন, ‘আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। কিন্তু তোমার রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে বাবা?’ তবে কোন পরিপ্রেক্ষিতে অখিল গিরি এই কথা বলেছিলেন তা সেই ভিডিয়ো থেকে স্পষ্ট নয়। মালব্যর পোস্ট করা ভিডিয়োটি মাত্র ১২ সেকেন্ডের। সেখানেই দেখা যায়, বিতর্কিত মন্তব্যের সময় সেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছেন কুণাল ঘোষ। উল্লেখ্য, এর আগে অখিল গিরিকে কটাক্ষ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, ‘দাঁত ফোকলা হাফ মন্ত্রী। কাকের মতো দেখতে। এসব লোকের কথার উত্তর দিই না।’ সেই পরিপ্রেক্ষিতেই অখিল গিরির এই মন্তব্য বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

অখিল গিরির মন্তব্যের সমালোচনা করে টুইটারে অমিত মালব্য লেখেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার সদস্য অখিল গিরি। তিনি বলছেন, আমরা রূপের বিচার করি না। তোমাদের রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে?। মুখ্যমন্ত্রী সবসময়ই আদিবাসী বিরোধী। তিনি রাষ্ট্রপতি মুর্মুকে সমর্থন করেননি। এখন এই ঘটনা। লজ্জাজনক!’ রাজ্যের মন্ত্রীর এই ধরনের মন্তব্যের নিন্দা করে টুইট করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারও। সুকান্ত প্রশ্ন করেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর সরকার আদিবাসীদের এত ঘৃণা করেন কেন?’

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।