লজ্জার ভরাডুবির পরেও রোহিতের টিম ইন্ডিয়ার পাশে রয়েছেন সচিন

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar) থেকে কপিল দেব (Kapil Dev)। বীরেন্দ্র শেহওয়াগ (Virender Sehwag) থেকে হরভজন সিং (Harbhajan Singh)। অ্যাডিলেডে ভারতের ভরাডুবি পর সবাই দলকে বিঁধছেন। তবে এমন বিপর্যয়ের পরেও রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) টিম ইন্ডিয়ার (Team India) পাশে দাঁড়ালেন সচিন তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar)। 

সচিন বলেন, ‘আমাদের জন্য খুব কঠিন ম্যাচ ছিল। ইংল্যান্ড কোনও উইকেট না হারিয়ে ১৭০ রান তুলে দিল! হতাশাজনক পারফরম্যান্স। তবে তাই বলে আমাদের দলকে খাটো করে দেখা উচিত নয়। কারণ মনে রাখতে হবে আমরা বিশ্বের এক নম্বর টি-টোয়েন্টি দল। শীর্ষে যাওয়ার জন্য আমাদের অনেক লড়াই করতে হয়েছে। রাতারাতি এই সাফল্য আসেনি। সেটা সবার মনে রাখা উচিত।’

সব ধরনের আইসিসি প্রতিযোগিতায় শুধুই ব্যর্থতা। স্বভাবতই আলোচনা চলছে টিম ইন্ডিয়া নতুন ‘চোকার্স’ নয় তো! পরিসংখ্যান অবশ্য তেমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে। ২০০৯, ২০১০, ২০১২, ২০১৪ ও ২০১৬ সালে খালি হাতে ফেরার পর, ২০২১-এর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ছিল সবচেয়ে খারাপ পারফরম্যান্স। প্রথম রাউন্ড থেকেই ছিটকে যায় ভারত। ৫০ ওভারের বিশ্বকাপেও যে সাফল্য নেই। ২০১৫ ও ২০১৯ সালে সেমি ফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছিল ভারত। ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে ১৮০ রানে হেরে যাওয়ার যন্ত্রণা ভুলে যাওয়ার নয়। এমনকি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও তো নিউজিল্যান্ডের কাছে গত বছর হেরে যেতে হয়েছে।  

আরও পড়ুন: Babar Azam, ICC T20 World Cup 2022: ‘কাপ জিতলেই বাবর ২০৪৮ সালে পাক প্রধানমন্ত্রী হবে’, মজার মন্তব্য করলেন সুনীল গাভাসকর

আরও পড়ুন: Sunil Gavaskar: রোহিতের টিম ইন্ডিয়ার উপর রেগে লাল সুনীল গাভাসকর! এবার কী বললেন?

সেটা মনে করিয়ে সচিন ফের যোগ করেন, ‘তবে তাই বলে আমি হার মেনে নিতে পারছি না। কারণ অ্যাডিলেডে ১৬৮ মোটেও জয়ের রান নয়। কারণ ওই মাঠের স্কয়ার অফ দ্য বাউন্ডারি খুব ছোট। ১৯০ রান করতে পারলে লড়াই করার একটা সুযোগ পাওয়া যেত। এই অ্যাডিলেডে ১৬৮ রান মানে আরও ছোট মাঠে সেটা ১৪০-১৫০ রান।’ 

তবে আইসিসি প্রতিযোগিতায় ভারতের ‘চোক’ করে যাওয়া নতুন ঘটনা নয়। ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর ২০১১ সালের ঘরের মাঠে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারতীয় দল। এরপর এল ২০১৩ সাল। মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে এই ইংল্যান্ডকে হারিয়েই দল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল ভারত। কিন্তু এরপর থেকে শুধুই একরাশ শূন্যতা। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।