বাঘ নয় চতুর শেয়াল, ফিরহাদের দাবি উড়িয়ে অনুব্রতকে নিশানা করলেন সৌমিত্র

Advertisement

তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে কার্যত বাঘ বলে সম্বোধন করেছিলেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এবার সেই অনুব্রতকে নিশানা করে তির ছুঁড়লেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তিনি এবার অনুব্রতকে কার্যত চতুর শেয়াল বলে উল্লেখ করেছেন। এদিকে সৌমিত্র খাঁর মুখে একথা শুনে ফের দানা বেঁধেছে বিতর্ক। বীরভূমের মহম্মদবাজারে কেষ্টর খাসতালুকে দাঁড়িয়ে তাঁকে চতুর শেয়াল বলে কটাক্ষ করলেন সৌমিত্র।

বিজেপি সাংসদ বলেন, পঞ্চায়েতের রাঢ়বঙ্গের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তৃণমূলকে উৎখাত করতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে পঞ্চায়েত পর্যন্ত যেতে হবে না। তার আগে সরকার পড়ে যেতে পারে। যেভাবে আর্থিক দেউলিয়া শুরু হয়েছে। তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই থাকবে। বীরভূমে দেখলেন পিতা কন্যা যেভাবে দুজনকেই কলকাতা, আসানসোল, দিল্লি ছোটাছুটি করতে হচ্ছে সেটা বাংলার রাজনীতিকে লজ্জার জায়গায় নিয়ে গিয়েছে।

এবার ফিরহাদ হাকিমের বাঘ সম্বোধনকে কটাক্ষ করে সৌমিত্র বলেন, ফিরহাদ হাকিমের ভাষায় কেউ বলছেন বাঘ। আমি বলছি একটা চতুর শেয়াল। চতুর শেয়াল ধরা পড়েছে। বীরভূমের মাটিতে রাষ্ট্রপতি ছিলেন।দুজন নোবেল প্রাপক এখানে ছিলেন। সেই জায়গায় চতুর শেয়াল রাজ করছিলেন। সেই রাজের ধ্বংস দেখতে চাই। অনুব্রত মণ্ডল একজন চতুর শেয়াল। বীরভূমের মানুষকে বোকা বানিয়ে তিনি বাঘ বনেছিলেন।

তিনি বলেন, তৃণমূলকে আমরা ভয় করি না। চতুর শেয়াল যখন জেলে আছেন তখন বীরভূমের মানুষ জবাব দিয়ে দেবেন। ভাইপো বেঁচে আছেন, সব নেতাদের বাড়িতে ঝামেলা হচ্ছে। ফিরহাদ হাকিম চতুর শেয়ালকে বাঘ বানিয়ে দিয়েছিলেন।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।