Mamata Banerjee: উত্তরবঙ্গকে অশান্ত করার জন্য বিহার থেকে বাংলায় আনা হচ্ছে অস্ত্র, অভিযোগ মমতার

Advertisement

বছর ঘুরলেই পঞ্চায়েত ভোট। তার আগে রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হচ্ছে আগ্নেয়াস্ত্র। এ বিষয়টিতে নজর রেখেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নদিয়ার রানাঘাটে প্রশাসনিক বৈঠকে যোগ দিয়ে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে উত্তরবঙ্গকে অশান্ত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ তুললেন মমতা। কোনওভাবেই যাতে বিহার থেকে বাংলায় আগ্নেয়াস্ত্র পাচার না হয় সে বিষয়ে তিনি পুলিশকে কড়া নির্দেশ দিলেন।

আজ বৃহস্পতিবার রানাঘাটে প্রশাসনিক বৈঠকে যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বিহার থেকে ১ হাজার টাকায় অস্ত্র ঢুকছে। ওপার থেকেও ঢুকছে।’ শুধু তাই নয়, ভিআইপি গাড়িতে করেও আগ্নেয়াস্ত্র বাংলায় ঢুকছে বলে গুরুতর অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ভিআইপি গাড়ি করে যেন রাজ্যে অস্ত্র না ঢোকে। কেউ কেউ ভিআইপি প্রোটেকশন নিয়ে গাড়ির আড়ালে অস্ত্র আনছে। এসব দিকে নজর রাখতে হয়। আগ্নেয়াস্ত্র পাচার বন্ধ করার জন্য নাকা তল্লাশি আরও বাড়াতে হবে। কড়া নজরদারি চালাতে হবে।’

মুখ্যমন্ত্রীর এরকম অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই রাজনৈতিক মহলে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। এনিয়ে পাল্টা রাজ্য সরকারকে দায়ী করেছেন বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, ‘রাজ্যে যদি অস্ত্র ঢুকে তাহলে সেটা দেখার দায়িত্ব পুলিশ প্রশাসনের। রাজ্যে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় তৃণমূলেরই নাম জড়িয়েছে।’ উত্তরবঙ্গে অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগ নিয়ে কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেন, ‘এটা মারাত্মক অভিযোগ। মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রকে জানিয়েছেন কিনা বা কেন্দ্র কোনও ব্যবস্থা নিয়েছে কিনা সেটা মানুষের জানার প্রয়োজন আছে।’

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।