সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করছে NIA, রানাঘাটে বিস্ফোরক দাবি মমতার

Advertisement

রাজ্যে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছাড়ানোর চেষ্টা করছে NIA বা ন্যশনাল ইনভেস্টিগেটিং এজেন্সি। এমনই দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার রানাঘাটের প্রশাসনিক বৈঠক থেকে একথা বলেন তিনি। যা শুনে বিজেপির প্রতিক্রিয়া, উনি ভারতের নেত্রী না পাকিস্তানের, বোঝা যায় না।

এদিন ডিসেম্বর মাসে রাজ্যে সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, কমিউনাল পকেটগুলো এখন থেকে দেখে রাখুন। ডিসেম্বর থেকে ধামাকা, মানে কমিউনাল যুদ্ধ লাগাবে। কর্ণাটকে অলরেডি লাগিয়েছে। এটাই একমাত্র পথ। এটা বাঁচার পথ নয়। চৈতন্যদেবের জায়গায় দাঁড়িয়ে বলছি এটা শান্তির পথ। জীবনটা শান্তির পথ। শান্তির আলো দেখার পথ। এটা মাথায় রাখতে হবে।’

এর পরই তিনি বলেন, ‘ওখানে কিছু সাম্প্রদায়িক সংগঠন আছে। তারা বদমাইশি করে। আর এনআইএ ঢুকেছে এসব করার জন্য।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যকে তীব্র আক্রমণ করেছে বিজেপি। স্থানীয় এক বিজেপি নেতা বলেন, উনি ভারতের নেত্রী না পাকিস্তানের, বোঝা যায় না। এর আগে সেনাবাহিনী ওনার ওপর নজরদারি চালাচ্ছে বলে কয়েকদিন চিৎকার করলেন। এখন বলছেন NIA সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরির চেষ্টা করছে। NIA তৈরি হয়েছে মুম্বই হামলার পর সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায়। তাহলে কি উনি সন্ত্রাসবাদীদের প্রতি সহানুভূতিশীল?

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।