বিটকয়েন পড়ল ২১ শতাংশ, প্রায় দেউলিয়া FTX; কী আছে ক্রিপ্টো-গ্রাহকদের কপালে?

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: দ্বিতীয় বৃহত্তম ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ FTX ভেঙ্গে যাওয়ার পরে অবশেষে ক্রিপ্টো বুদ্বুদটি ফেটে গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এই খবরের মাঝেই জানা গিয়েছে যে এর আগে বিনিয়োগকারীরা তাদের টোকেনগুলি লিকুইডেট করারও সুযোগ পাননি। বেশ কিছু জনপ্রিয় ডিজিটাল টোকেন গত ৪৮ ঘন্টায় ক্র্যাশ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনায় ১০০ বিলিয়ন ডলারে মুল্যের ক্রিপ্টো সম্পদ সম্পূর্ণ মুছে গিয়েছে এবং দীর্ঘ ‘ক্রিপ্টো উইন্টার’ শুরু হয়েছে।

FTX প্রায় দেউলিয়া হওয়ার অবস্থায় এসে দাঁড়িয়েছে এবং FTX টোকেন অকেজো হয়ে গিয়েছে। গত কয়েক দিনে ৯৮ শতাংশের এর বেশি ক্র্যাশ হয়েছে এই টোকেন। অন্যান্য বড় ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ যেমন Binance, তাদের FTX-কে অধিগ্রহণ করার দাবি থেকে পিছিয়ে গিয়েছে। বিনিয়োগকারীদেরকে এই সেক্টরের ভবিষ্যত সম্পর্কে চিন্তায় ফেলেছে এই ঘটনা।

আমরা ক্রিপ্টো ক্রেজের শেষের দিকে তাকিয়ে আছি বলে মনে করা হচ্ছে।

এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে, একজন ৩০ বছর-বয়সী উদ্যোক্তা যাকে আধুনিক যুগের জেপি মরগান হিসাবে বলা হচ্ছিল তাঁর ডিজিটাল সাম্রাজ্য ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। যার মধ্যে তাঁর নিজের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে। এই ঘটনা ট্রিলিয়ন-ডলার ক্রিপ্টো শিল্পের ভিত্তিকে নড়িয়ে দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বিপাকে পুতিন, ইউক্রেন যুদ্ধে ছারখার এক লক্ষ রুশ সেনা!

বৃহস্পতিবার, স্যাম ব্যাঙ্কম্যান-ফ্রাইড ট্যুইটার থ্রেডে ক্ষমা চেয়েছেন। FTX-এর বিনিয়োগকারী এবং গ্রাহকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। এটি একটি বিনিময় প্ল্যাটফর্ম যা তিনি ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

ক্রিপ্টোর অস্পষ্ট, মূলত অনিয়ন্ত্রিত বিশ্বে ব্যর্থতা অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু FTX একটি সাধারণ ক্রিপ্টো স্টার্টআপ নয়।

এফটিএক্স ট্রেডিং-এর জন্য নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করার উপযুক্ত এখতিয়ার কী হবে তা নিয়ে একটি প্রশ্ন রয়েছে। এটি একটি অফশোর কর্পোরেশন হওয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তাঁর নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করা উচিত কিনা তা অস্পষ্ট বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

যদি FTX দেউলিয়া হয় তাহলে এক্সচেঞ্জের ঋণগুলি কভার করার জন্য একজন প্রশাসক তার তহবিল সিজ করতে পারেন। FTX গ্রাহকরা এই ক্ষেত্রে সম্ভবত অনিরাপদ পাওনাদার হয়ে উঠবেন। এরফলে যারা অর্থ ফিরে পাবেন তাদের লাইনে পিছনে চলে যাবেন তাঁর।

সাম্প্রতিক অতীতে বিভিন্ন ক্রিপ্টো দেউলিয়া হওয়ার ঘটনায়, ব্যর্থ ক্রিপ্টো কোম্পানিগুলি বেশিরভাগই এই অবস্থান নিয়েছে যে গ্রাহক তহবিলগুলি এস্টেটের সম্পত্তি এবং তারা যা খুশি তাই করার জন্য এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন। বলা হচ্ছে এই অর্থের অনেকটাই সম্ভবত তাঁরা ইতিমধ্যেই শেষ করে ফেলেছে।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।