কাপড়ের ব্যবসার আড়ালে চলত অস্ত্রের কারবার, বললেন গ্রেফতার অস্ত্রকারবারির স্ত্রী

Advertisement

শনিবার ব্যাবসার কাজে যাচ্ছি বলে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। মঙ্গলবার চলন্ত লোকাল ট্রেন থেকে অস্ত্রসহ ধরা পড়লেন এসটিএফের হাতে। তবে উত্তর ২৪ পরগনার হাবরার নতুনগ্রামের বাসিন্দা তপন সাহার গ্রেফতারিতে মোটেও আশ্চর্য নয় পরিবার বা প্রতিবেশীরা। কারণ, একই কারণে এর আগে অন্তত বার চারেক গ্রেফতার হয়েছেন তিনি। স্ত্রী জানালেন, স্বামীর এই কারবারের কথা তিনি জানেন না।

এদিন দুপুরে তপন সাহার বাড়ি গিয়ে দেখা যায়, বন্ধ বাড়িতে রয়েছে স্ত্রী ও একমাত্র মেয়ে। মেয়ে এবার মাধ্যমিক দেবে। স্বামীর গ্রেফতারির খবরে বিহ্বল স্ত্রী। কার্যত ভেঙে পড়েছেন তিনি। কিছুটা সামলে নিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বললেন, আমার স্বামী কাপড়ের ব্যবসা করে। তার আড়ালে এসবও করে শুনেছি। এর আগে একাধিকবার গ্রেফতার হয়েছে। কত বার তা মনে নেই। বাড়িতে কখনও অস্ত্র নিয়ে আসতে দেখিনি। তবে শুনেছি ও না কি এসব করে। অনেকবার বারণ করেছি। শোনেনি।

তিনি আরও জানান, শনিবার ব্যবসার কাজে যাচ্ছি বলে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। তার পর থেকে ফোনে যোগাযোগ করতে পারিনি। সকালে শুনলাম ওকে না কি আবার পুলিশে ধরেছে।

নতুনগ্রামে দোতলা বাড়ি তপনবাবু। সোমবার দমদম ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে চলন্ত আপ হাবরা লোকাল থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে STF. তার সঙ্গে থাকা ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয়েছে ২টি ৭ এমএম পিস্তল ও ২টি ওয়ান শটার। হাবরা, অশোকনগর, বসিরহাটে দুষ্কৃতীদের অস্ত্র সরবরাহ করতেন তিনি। প্রতিবেশীরা জানাচ্ছেন, এলাকায় এরকম মানুষ থাকলে ভয় তো করবেই।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।