Bangladeshi Actress Jyotika Jyoti : ‘সম্পর্ক খারাপ হওয়ার থেকে কাজ না করাই ভালো’

Advertisement

Jyotika Jyoti, Bangladesh, জ্যোতিকা জ্যোতি, জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: সালটা ২০০৪, বাংলাদেশে লাক্স-আনন্দধারা ফটোজেনিক প্রতিযোগিতায় সেরা দশে স্থান করে নিজের পরিচিতি তৈরি করেন অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। বাংলাদেশের বিনোদন দুনিয়ায়, বিশেষ করে বিজ্ঞাপন, টেলিভিশন, নাটক, সিনেমার দুনিয়ায় নিজের জায়গা করে নেন জ্যোতিকা। ২০০৫ সালে ‘আয়না’ ছবির হাত ধরেই বাংলাদেশের সিনেমার দুনিয়ায় পা রাখেন, তারপর ‘নন্দিত নরকে সহ বেশকিছু বাংলা ছবিতে অভিনয় করলেও কোনওদিনই প্রচুর কাজ করার পক্ষপাতী ছিলেন না জ্যোতিকা। সম্প্রতি, নিজের কাজ, কেরিয়ার, নাম সহ নানান কিছু নিয়েই বাংলাদেশের একটি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে মুখ খুলেছেন জ্যোতিকা।

নাম জ্যোতিকা জ্যোতি। উইকিপিডিয়া বলছে তাঁর নাম জ্যোতিকা পাল জ্যোতি। বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে নিজের নাম নিয়েই প্রশ্নের মুখে পড়েছিলেন তিনি। অভিনেত্রী বলেন, ‘জ্যোতিকা শব্দের আক্ষরিক অর্থ ঠিক নেই। তবে জ্যোতি শব্দের অর্থ আলো। তবে আমার নাম আসলে জ্যোতিকা, আমার দাদি রেখেছিল। জ্যোতিকা বলতে আলোকিত বোঝায়।’ অভিনয়ে আসার পর অনেককেই নাম বদলের প্রস্তাবের মুখে পড়তে হয়। তাঁকেও কি হয়েছিল? এই প্রশ্ন জ্যোতিকা বলেন, ‘না, সেভাবে কোনও পরিবর্তনের প্রস্তাব আসেনি। আসলে লাক্স-আনন্দধারা ফটোজেনিক যখন হয়েছিলাম, তখন তাঁরা জ্যোতিকা পাল জ্যোতিই লিখেছিল। তারপর অনেকেই ছোট করে কেউ জ্যোতিকা, কেউ জ্যোতি লিখত। এখন সবাই জ্যোতিকা জ্যোতি বলেন। তবে আমার আসল নাম জ্যোতিকা। তবে হ্যাঁ, যখন আমি একটা বাণিজ্যিক ছবি করেছিলাম, তখন পরিচালক একবার বলেছিলেন। তবে আমি রাজি হইনি। কারণ, যে নামে সার্টিফিকেটে, সেখানে নাম পরিবর্তনের পক্ষপাতী আমি নই।’

আরও পড়ুন-বিবেক সহ ওবেরয় পরিবারের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ, কী বলল দিল্লি হাইকোর্ট!

আরও পড়ুন-সাড়ে ৪ ঘণ্টার অস্ত্রোপচার, হাসপাতাল থেকে স্বামীর ভিডিয়ো পোস্ট ভাগ্যশ্রীর

জ্যোতিকা জানান, তিনি প্রায় ১২ বছর অভিনয়ে রয়েছেন। জানান, পড়াশোনা করতে করতেই ‘বহুরূপী’ নাটকে তিনি যুক্ত হন। যদিও থিয়েটারে নিয়মিত কাজ করার সময় পাননি। সিনেমায় আসার পর বহু ছবিতে অভিনয় করেছেন। যার মধ্যে তিনি জানান, ‘নন্দিত নরকে’ অভিনয়ের জন্য বহু মানুষের প্রশংসা পেয়েছেন। এছাড়াও ‘অনিল বাগচীর একদিন’  ছবিটিও একাধিক বিভাগে বাংলাদেশের জাতীয় পুরস্কার পায়। অভিনেত্রী জানান, কেরিয়ারের শুরুর দিকে তিনি সবসময় বেছে বেছে কাজ করার সুযোগ পাননি। অনেক চরিত্র পছন্দ না হওয়া সত্ত্বেও তিনি করেছেন। তবে সিনেমার ক্ষেত্রে তিনি বরাবরই বেছে কাজ করার চেষ্টা করেন। তাঁর কথায়, ‘একসময় তাঁর কাছেও প্রচুর বাণিজ্যিক ছবির প্রস্তাব এসেছে। তবে তিনি বেছে বেছেই করেছেন। বিশেষ করে ২০০৭-০৮ এ বাংলাদেশের সিনেমায় বিশেষ রুচি সম্মত কাজ হচ্ছিল না। সেকারণে অনেক সময়ই আমি ভালো ছবির প্রস্তাবের জন্য অপেক্ষা করেছি। তখন নিয়মিত নাটকে কাজ করেছি। সেখানেও এমন হয়েছে পছন্দ হয়নি তবু অনেক সিনিয়ার পরিচালক বলছেন বলে কাজ করেছি। তবে সিনেমা বিষয়টা ছড়িয়ে যায়। সেখানে মনের বিরুদ্ধে গিয়ে আমি কোনও কাজ করতে চাই না। ওধরনের কাজ করতে গেলে হয় আমার মেজাজটাই খারাপ হয়ে যাবে। তাই মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার থেকে কাজ না করা ভালো। ‘

বর্তমানে বাংলাদেশে বহু তরুণ-তরুণী অভিনয়ে আসছে, অনেক ক্ষেত্রে ফেসবুক থেকেও উঠে আসছে। সেই প্রসঙ্গে জ্য়োতিকা জ্যোতি বলেন, যে অনেকেই আসছেন, তবে যাঁরা মেধাবী, গুণী তাঁরাই টিকে থাকবেন বলে তাঁর মনে হয়। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।