ভিডিয়ো: সামনে ঝাঁপিয়ে সেরা ক্যাচ ধরলেন কোহলি, তারপরেই লাজুক হাসি

Advertisement

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শনিবার ভারত বনাম জিম্বাবোয়ের মধ্যে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে,টস জিতে ভারতীয় দল প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ছিল এবং জিম্বাবোয়ের সামনে ১৮৭ রানের বড় লক্ষ্য রেখেছিল। যা তাড়া করতে গিয়ে জিম্বাবোয়ের দল প্রথম বলেই উইকেট হারায়। আমরা আপনাকে বলি যে এই ম্যাচটি মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে পাকিস্তান দল। একই সঙ্গে সেমিফাইনালের দৌড় থেকে আগেই ছিটকে গিয়েছিল জিম্বাবোয়ে। এটা ছিল তাদের নিয়রক্ষার ম্যাচ। অন্যদিকে ভারতের কাছে ছিল টেবিল টপার হওয়ার সুবর্ণ সুযোগ। যেটাকে কাজে লাগাল রোহিত শর্মারা।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: বাউন্ডারিতে উড়ে ধরলেন পন্তের ক্যাচ! দেখেছেন কি বার্লের ‘সুপার ফিল্ডিং’

ভারতীয় দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা সবসময় মাঠে সকলকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে থাকেন। এমনই একটি ঘটনা সামনে এসেছে জিম্বাবোয়ের ব্যাটিংয়ে প্রথম বলেই। জিম্বাবোয়ের ওপেনার ওয়েসলি মাধভেরে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে শক্তিশালী শট খেলেন। সেই বলটি বিরাট কোহলির কাছে যায়। দ্রুত মাটিতে লাফিয়ে সেই ক্যাচ ধরে ফেলেন কিং কোহলি। এত দ্রুত ক্যাচ নেওয়ার পর কোহলি মাটিতে বসে পড়েন এবং অন্যান্য খেলোয়াড়দের দিকে তাকিয়ে একটি সুন্দর হাসি দেন, যা সকলের মন কেড়ে নেয়। আসলে কোহলি নিজেও এই ক্যাচ নিয়ে বিশ্বাস করতে পারেননি।

ম্যাচের কথা বললে, ২০২২ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার-12-এর শেষ ম্যাচে ভারত জিম্বাবোয়েকে ৭১ রানে হারিয়েছে। টিম ইন্ডিয়া,প্রথমে ব্যাট করে জিম্বাবোয়ের সামনে জয়ের জন্য ১৮৭ রানের লক্ষ্য রেখেছিল,এই স্কোরের সামনে পুরো দল ১১৫ রানে গুটিয়ে যায়। এই জয়ে গ্রুপ 2-এর পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে টিম ইন্ডিয়া। ভারত এখন সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি রোহিত অ্যান্ড কোম্পানি।

আরও পড়ুন… এটাই কি শাকিবের শেষ বিশ্বকাপ? পাকিস্তানের কাছে হেরে কী বললেন বাংলাদেশের অধিনায়ক?

প্রতিযোগিতা সম্পর্কে কথা বলতে গেলে,কেএল রাহুলের সঙ্গে সূর্যকুমার যাদব ভারতকে ১৮৬ স্কোরে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। রাহুল ৩৫ বলে ৫১ রান করেন এবং সূর্য ২৫ বলে ৬১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। মাঝ ওভারে রাহুল ও কোহলির পতনের পর ভারতের রানের গতি অবশ্যই মন্থর হয়ে গিয়েছিল, কিন্তু সূর্য শেষ ৫ ওভারে তা পূরণ করেন। শেষ ৩০ বলে ৭৯ রান করেছিল ভারত।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি জিম্বাবোয়ের। ভুবনেশ্বর কুমার, আর্শদীপ সিং এবং মহম্মদ শামি একটি করে উইকেট নিয়ে পাওয়ারপ্লেতেই জিম্বাবোয়ের তিনটি উইকেট ফেলে দেন। এরপর তিন উইকেট নিয়ে দলের পিঠ ভেঙে দেন অশ্বিন। ১১৫ রানে গুটিয়ে যায় জিম্বাবোয়ের পুরো দল।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।