India on North Korea Missile Launch: ‘বিরূপ প্রভাব…’, উত্তর কোরিয়ার মিসাইল উৎক্ষেপণ নিয়ে UN-এ উদ্বেগ প্রকাশ ভারতের

Advertisement

বিগত কয়েকদিন ধরে কোরিয়া উপদ্বীপে বেড়েছে উত্তেজনা। উত্তর কোরিয়া পরপর মিসাইল উৎক্ষেপণ করেছে সেখানে। এগুলির মধ্যে একটি মিসাইল তো সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করে দক্ষিণ কোরিয়া উপকূলের খুব কাছে এসে পড়েছিল। এই নিয়ে এবার রাষ্ট্রসংঘে উদ্বেগ প্রকাশ করল ভারত। উত্তর কোরিয়ার মিসাইল লঞ্চের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ভারতের বার্তা, ‘আলোচনা ও কূটনীতির মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে হবে।’

রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি রুচিরা কাম্বোজ বলেন, ‘সাম্প্রতিককালে ডিপিআরকে (ডেমোক্রেটিক পিপলস রিপাবলিক অফ কোরিয়া) যে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে, সেই বিষয়ে আমরা আগেই আমাদের উদ্বেগ প্রকাশ করেছি। নিরাপত্তা পরিষদের ডিপিআরকে সম্পর্কিত প্রস্তাবনা লঙ্ঘন করে এই উৎক্ষেপণগুলি। এই ঘটনা গোটা অঞ্চলের শান্তি ও নিরাপত্তাকে প্রভাবিত করে। ভারত ডিপিআরকে সংক্রান্ত ইউএনএসসি প্রস্তাবনার বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছে। পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তির বিস্তার উদ্বেগের বিষয়। এগুলি এই অঞ্চলের শান্তি ও নিরাপত্তার উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে।’

উল্লেখ্য, গত বুধবার সকাল সকালে ২০টিরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে উত্তর কোরিয়া। আর এর জেরে দেশের জনগণকে সতর্ক করেছিল দক্ষিণ কোরিয়া। জানা যায়, উৎক্ষেপণ করা ১০টি মিসাইলের মধ্যে একটি দক্ষিণ কোরিয়ার উপকূলের থেকে মাত্র ৬০ কিলোমিটার দূরে আন্তর্জাতিক সমুদ্রে গিয়ে পড়ে। সেই মিসাইলটি ব্যালিস্টিক ছিল বলে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়া এবং আমেরিকার বায়ুসেনার যৌথ মহড়ার বিরোধিতা করে এসেছে উত্তর কোরিয়া। এই আবহে মিসাইল উৎক্ষেপণের ঘটনায় কোরিয়া জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৯৫০ সালের কোরিয়া যুদ্ধের পর এই প্রথম কোনও মিসাইল সমুদ্রসীমা পার করল। রিপোর্ট অনুযায়ী, স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রটি দক্ষিণ কোরিয়ার উলেংডোর দ্বীপের কাছে পড়ে। এরপরই দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় টেলিভিশনে সতর্কবার্তা সম্প্রচার করা হয়।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।